রোহিঙ্গা

বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ করা কয়েক লাখ রোহিঙ্গার নিবন্ধন আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে শেষ হবে বলে আশা করছে পাসপোর্ট অধিদপ্তর। কক্সবাজারের ৭টি কেন্দ্রে বায়োমেট্টিক পদ্ধতিতে এখন পর্যন্ত ৬ লাখ ৪০ হাজার রোহিঙ্গার নিবন্ধন সম্পন্ন হয়েছে। রোহিঙ্গাদের নিবন্ধন কাজ আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে শেষ হবে বলে আশা প্রকাশ করে পাসপোর্ট অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মাসুদ রেজওয়ান বলেন, বাংলাদেশ-মিয়ানমারের সমঝোতা চুক্তি অনুযায়ী রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে ফেরত পাঠাতে এই তথ্যভান্ডার গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। মিয়ানমারের সাথে বাংলাদেশ সরকারের সমঝোতা স্মারকের পর নিজ দেশে ফিরে যেতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সহযোগিতা কামনা করেছে রোহিঙ্গারা। একইসাথে নাগরিকত্বসহ রোহিঙ্গা জাতিগত স্বীকৃতিরও দাবি তাদের । গত ২৫ অ

By সরওয়ার আজম মানিক on শনিবার, ২৫ নভেম্বর ২০১৭ ০৯:২৮

জাতিগত নিধনের শিকার হয়ে প্রাণ বাঁচাতে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নেয়ার বিষয়ে বাংলাদেশের কূটনৈতিক তৎপরতা এবং আন্তর্জাতিক চাপে মিয়ানমার সমঝোতা স্মারক সাক্ষর করলেও অতীত অভিজ্ঞতায় রোহিঙ্গারা নিজ দেশে ফিরে যাওয়ার বিষয়ে উদ্বিগ্ন। যতক্ষণ তাদেরকে ফেরত নেওয়া শুরু না হবে, ততক্ষণ মিয়ানমার সরকারকে তারা বিশ্বাস করতে চায় না বলেও জানিয়েছেন। প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়ার বিষয়ে নিজেদের উদ্বেগের কারণ হিসেবে রোহিঙ্গারা বলছেন: তাদেরকে ফেরত নিয়ে কোথায় রাখা হবে তা এখনও ধোয়াশা করে রেখেছে মিয়ানমার কর্তৃপক্ষ। এ বিষয়ে কোন ছলচাতুরি না করে মিয়ানমার যদি তাদের নাগরিকত্ব ও জমিজমা ফিরিয়ে দেয় এবং সেখানকার অন্যান্য জনগোষ্ঠীর মতো সুযোগ সুবিধা দেয় তাহলে মিয়ানমারে ফিরে যেতে তাদের কোন আপত্তি নেই। র

By চ্যানেল আই অনলাইন on বৃহস্পতিবার, ২৩ নভেম্বর ২০১৭ ২৩:৪২

শেষ পর্যন্ত বাংলাদেশে অনুপ্রবেশকারী রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে সমঝোতা স্মারক সই করেছে মিয়ানমার। বলতে গেলে আর্ন্তজাতিক চাপের মুখে তা করতে বাধ্য হয়েছে তারা। নেপিডো’তে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলী এবং মিয়ানমারের পররাষ্ট্র দপ্তরের মন্ত্রী কায়ো টিন্ট সোয়ে স্মারকে সই করেন। এতে বলা হয়েছে, আগামী দু’মাসের মধ্যে রোহিঙ্গাদের নিজ দেশে প্রত্যাবাসন শুরু হবে। আর দ্রুত প্রত্যাবর্তনের জন্য আগামী তিন সপ্তাহের মধ্যে একটি যৌথ ওয়ার্কিং গ্রুপ এবং দ্বিপক্ষীয় ব্যবস্থাপনা গঠিত হবে।সমঝোতা স্মারকে সই করে মাহমুদ আলীও আশা প্রকাশ করে বলেছেন, আগামী দুই মাসের মধ্যে রোহিঙ্গারা নিজ দেশে ফেরা শুরু করবে। আমরা জানি, গত আগস্ট মাসে রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গা নিধন শুরু হওয়ার পর প্রাণ বাঁচাতে বাংলাদে

By সম্পাদনা পর্ষদ on বৃহস্পতিবার, ২৩ নভেম্বর ২০১৭ ২১:১৪

অধিকারের বিষয়টি একেক জনের কাছে একেক রকম। বিশ্বের শীর্ষ ধনী মার্কিন ধনকুবের মাইক্রোসফটের প্রতিষ্ঠাতা বিল গেটসের সন্তান হয়ে যে শিশু এ পৃথিবীর আলো দেখে তার কাছে অধিকার এক রকম, আর রাজধানী ঢাকার ব্যস্ত গলি অথবা ফুটপাতে রাত কাটানো কোন মায়ের কোলে জন্ম নেওয়া সন্তানের কাছে অধিকার অন্য রকম। কেউ পৃথিবীর আলো দেখে সোনার চামচ মুখে নিয়ে, আর কারও জীবনই হয়ত কেটে যায় সোনার চামচের সন্ধান করতে করতে। জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্র, প্রতিটি মুহূর্ত মানুষকে অধিকারের শিক্ষা দেয়। কেউ অধিকার পেয়ে খুশি কেউ অন্যকে অধিকার বঞ্চিত করে খুশি। এমনই একটি ভাগ্যহত জাতি রোহিঙ্গা যারা আজও লড়ছে তাদের অধিকার আদায়ে। কুতুপালং ক্যাম্পে তখন শুধুই ক্ষুধার্ত মানুষের আর্তনাদ। যে মানুষগুলোর কথা বলছি এরা কি আসলেই নিজেদের মান

By কাজী ইমদাদ on বৃহস্পতিবার, ২৩ নভেম্বর ২০১৭ ১৬:১৪

রোহিঙ্গা ইস্যুতে মিয়ানমারের নেপিডোতে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলী এবং মিয়ানমারের ক্ষমতাসীন দলের প্রধান অং সান সু চি’র বৈঠক শেষ হয়েছে। বৃহস্পতিবারই সই হতে পারে রোহিঙ্গা বিষয়ে দুই দেশের মধ্যেকার দ্বিপাক্ষিক চুক্তি। পরে এই বিষয়ে অানুষ্ঠানিক প্রেস কনফারেন্স হবে। মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্য থেকে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠিকে ফেরত পাঠাতে মিয়ানমারের সঙ্গে চুক্তি সইয়ের সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হয়েছে। চুক্তির আওতায় একটি যৌথ ওয়ার্কিং গ্রুপ গঠন করে সংকট সমাধানের চেষ্টা হবে বলে জানা গেছে। এর আগে দিনব্যাপী দীর্ঘ আলোচনায় রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠানোর প্রক্রিয়া নিয়ে আলোচনা করেন দুই দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর নেতৃত্বে মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা। বিভিন্ন কর্মকর্তাদের সঙ্গে

By চ্যানেল আই অনলাইন on বৃহস্পতিবার, ২৩ নভেম্বর ২০১৭ ১২:৩৮

কক্সবাজারে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গাদের মধ্যে ১৫ শতাংশ পরিবার পুরুষ শূন্য। এসব পরিবারের প্রধান হিসেবে কাজ করছেন নারীরা। একই সঙ্গে ৫ হাজার শিশু রয়েছে যারা পরিবারের প্রধান হিসেবে কাজ করছে। বুধবার রাতে কক্সবাজারের আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এমন তথ্য জানিয়েছেন, জাতিসংঘের শরাণার্থী বিষয়ক সংস্থা ইউএনএইচসিআর এর সিনিয়র ইমারজেন্সি কোঅরডিনেটর লুইস অবিন। নতুনও পুরাতন রোহিঙ্গাদের মধ্যে তাদের সংস্থার এক নিজস্ব জরিপে এ তথ্য উঠে এসেছে। ইউএনএইচসিআর এর সিনিয়র ইমারজেন্সি কোঅরডিনেটর লুইস অবিন জানান, ইতিমধ্যে এক লাখ ৭২ হাজার পরিবারের সাথে আলাপ করেছে। যেখানে ৭ লাখ ৪৫ হাজারের বেশি মানুষ রয়েছে। এসব পরিবারের মধ্যে পুরুষ শূন্য এবং শিশু-নারী পরিবার প্রধান পাওয়া গেছে। পুরুষ শূন্য পরিবারের মধ্যে কেউ নিখো

By সরওয়ার আজম মানিক on বৃহস্পতিবার, ২৩ নভেম্বর ২০১৭ ১১:০২

রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে বাংলাদেশের পাশে থাকার কথা জানিয়েছে কানাডা। আর বাংলাদেশের উন্নয়নে সহযোগিতা অব্যাহত রাখার কথা জানিয়েছে সৌদি আরব। সফররত কানাডার আন্তর্জাতিক সম্পর্ক ও উন্নয়ন বিষয়ক মন্ত্রী মারি ক্লাউদে বাংলাদেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রার অংশী হওয়ার অঙ্গীকার করেছেন। সন্ধ্যায় প্রধানমন্ত্রীর সংসদ ভবনের কার্যালয়ের তার সঙ্গে দেখা করে এই অঙ্গীকারের কথা জানান কানাডার মন্ত্রী। কানাডার মন্ত্রীর আগে ঢাকায় সৌদি আরবের রাষ্ট্রদূত আব্দুল্লাহ আল মুতাইরিও দেখা করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে। তিনিও বাংলাদেশের উন্নয়নে তার দেশের সহযোগিতার কথা জানান। পরে জাতীয় সংসদে সরকারী দলের সভাকক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সংসদীয় দলের সভা অনুষ্ঠিত হয়।

By চ্যানেল আই অনলাইন on বুধবার, ২২ নভেম্বর ২০১৭ ২৩:৩৭

মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গাদের উপর জাতিগত নিধন হয়েছে বলে মনে করছে যুক্তরাষ্ট্র। রোহিঙ্গাদের উপর চলমান নিপীড়ন বন্ধ করার আহ্বান জানিয়ে বুধবার যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসন একথা বলেন। সেনাবাহিনীর অত্যাচারে রোহিঙ্গাদের জীবনে সীমাহীন ভোগান্তি নেমে এসেছে উল্লেখ করে এক বিবৃতিতে টিলারসন বলেন: রোহিঙ্গাদের উপর যে ভয়ঙ্কর নির্যাতন চালোনো হয়েছে তা ভাষায় বর্ণনা করা কঠিন। ‘এখন পর্যন্ত প্রাপ্ত তথ্য-উপাত্ত এবং বিষয়াবলী সতর্কতার সঙ্গে বিশ্লেষণ করলে এই বিষয়টি পরিষ্কার হয়ে যায় যে উত্তর রাখাইনে রোহিঙ্গাদের উপর জাতিগত নিধন হয়েছে। যারা এই নিধন পরিচালনা করেছে, তাদেরকে অবশ্যই দায় দিতে হবে।’ মিয়ানমারের উপর সম্ভাব্য নিষেধাজ্ঞা ও শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণের পাশাপ

By চ্যানেল আই অনলাইন on বুধবার, ২২ নভেম্বর ২০১৭ ২৩:২৮

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন: আন্তর্জাতিক মহলে রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে যে জনমত সৃষ্টি হয়েছে তা আওয়ামী লীগ সরকারের জোর কূটনৈতিক প্রচেষ্টারই সাফল্য। মিয়ানমারের নাগরিকদের স্বদেশে নিরাপদে ফিরে যাওয়ার বিষয়টি এখন আন্তর্জাতিকভাবে সকলের প্রত্যাশা। বুধবার সংসদে নির্ধারিত প্রশ্নোত্তর পর্বে সরকারি দলের সদস্য মুহাম্মদ মিজানুর রহমানের এক প্রশ্নের জবাব দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এসময় তিনি বলেন: মিয়ানমারে রোহিঙ্গা বা আরাকানের মুসলমানদের ওপর পরিচালিত হত্যাযজ্ঞ পৃথিবীর সকল জঘন্যতম হত্যাকাণ্ডকে হার মানিয়েছে। অন্যদিকে জাতিগত নিধনের শিকার রোহিঙ্গাদের মানবিক আশ্রয় দেয়ায় বাংলাদেশ সারা বিশ্বে প্রশংসিত হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী বলেন: বাংলাদেশ সবসময় যেকোন সমস্যার শান্তিপূর্ণ সমাধানে বিশ

By চ্যানেল আই অনলাইন on বুধবার, ২২ নভেম্বর ২০১৭ ২০:৫৬

মিয়ানমার থেকে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের চিকিৎসা ও স্বাস্থ্যসেবা দিচ্ছে স্বাস্থ্য বিভাগ। এরইমধ্যে উখিয়া ও টেকনাফের ক্যাম্পে থাকা রোহিঙ্গাদের স্বাস্থ্যসেবা দিতে ৪১টি মেডিকেল টিম গঠন করা হয়েছে। সাথে চলছে ত্রাণ বিতরণ ও জায়গা বরাদ্দ দেয়ার কাজ। প্রতিদিনই কক্সবাজারের বিভিন্ন পয়েন্ট দিয়ে অনুপ্রবেশ করছে রোহিঙ্গারা। উখিয়া ও টেকনাফে রোহিঙ্গাদের জন্য ৩ হাজার একর জমি বরাদ্ধ দেয়া হয়েছে। সেখানে ১২টি ক্যাম্প করে ২০টি ব্লকে ভাগ করা হয়। নির্ধারিত সেসব স্থানেও এখন আর জায়গা নেই। তবে আশেপাশে জায়গা দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছে জেলা প্রশাসন। পালিয়ে আসা রোহিঙ্গা শরণার্থীদের রাগব্যাধিমুক্ত রাখতে ও সুচিকিৎসা নিশ্চিত করতে প্রতিনিয়তই কাজ করে যাচ্ছে স্বাস্থ্য বিভাগ। চিকিৎসাসেবার পাশাপাশি শিশুদের ভ

By সরওয়ার আজম মানিক on বুধবার, ২২ নভেম্বর ২০১৭ ১২:৫৪