আপন জুয়েলার্সে অভিযান

আপন জুয়েলার্সের ৫টি শোরুম থেকে শুল্ক গোয়েন্দা অধিদফতরের জব্দ করা স্বর্ণ ফেরত দিতে ৪৮ ঘন্টার অাল্টিমেটাম দিয়েছে সোনা ব্যবসায়ীদের সংগঠন বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি (বাজুস)। বুধবার দুপুরের দিকে রাজধানীর বায়তুল মোকাররমে বাজুস কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ অাল্টিমেটাম দেন সংগঠনের সহ-সভাপতি এনামুল হক খান। এ সময় বাজুস নেতারা শুল্ক গোয়েন্দা অধিদফতরের প্রধান মঈনুল খানকে প্রত্যাহারের দাবি জানান। বাজুসের সিনিয়র সহসভাপতি এনামুল হক দোলন বলেন, কয়দিন পর পর মঈনুল খান একটা করে বিবৃতি দেন। এরফলে ক্রেতা ও স্বর্ণ ব্যবসায়িদের মধ্যে এক ধরণের আতংক সৃষ্টি হয়। গত কয়েক দিনে শুল্ক গোয়েন্দার অনৈতিক কর্মকাণ্ডে জুয়েলারি ব্যবসায়িদের ২৮ লাখ পরিবার পথে বসার উপক্রম হয়েছে। বেকার হয়েছে হাজার হাজার ক

By জসিম উদ্দিন বাদল on বুধবার, ০৭ জুন ২০১৭ ১৭:৩৫

আপন জুয়েলার্স থেকে জব্দ করা সোনার মধ্যে ৩শ’ ৮৯ জন গ্রাহকের দাবি নিষ্পত্তি করতে তিন সদস্যের কমিটি করেছে কাষ্টমস ইন্টেলিজেন্স। গোয়েন্দা কর্মকর্তারা বলছেন, স্বর্ণ চোরাচালানের সুনির্দিষ্ট অভিযোগ প্রাথমিক তদন্তে প্রমাণ হলেই কেবল অভিযান চালাবেন তারা। ডার্টি মানির খোঁজে মাঠে নেমে রাজধানীর ৫টি শো রুম থেকে আপন জুয়েলার্সের ১৫ মনেরও বেশী স্বর্ণালংকার আটক করে কাষ্টমসের গোয়েন্দারা। চোরাচালানের মাধ্যমে বেশীরভাগ স্বর্ণ এসেছে নিশ্চিত হয়ে তা জব্দ করে কেন্দ্রীয় ব্যাংকে জমা দেয়া হয়েছে। তবে এর মধ্যে প্রায় ৪শ’ গ্রাহকের স্বর্ণ রয়েছে বলে দাবী আপন জুয়েলার্সের। কাষ্টমস গোয়েন্দারা বলছেন, গ্রাহকের দাবী নিষ্পত্তির দায়িত্ব জুয়েলার্স কর্তৃপক্ষের। কাষ্টমস ইন্টিলিজেন্সের ডিজি ডক্টর মইনুল খান  সা

By এনামূল কবীর রূপম on মঙ্গলবার, ০৬ জুন ২০১৭ ২১:৫৯

আদেশ পেয়ে  আইনজীবীসহ ফের শুল্ক গোয়েন্দা দফতরে হাজির হয়েছেন আপন জুয়েলার্সের মালিক দিলদার আহমেদ, তার ভাই গুলজার আহমেদ ও আজাদ আহমেদ। মঙ্গলবার রাজধানীর কাকরাইলে শুল্ক গোয়েন্দা দফতরে ব্যবসায়িক কাগজপত্র নিয়ে হাজির হন তারা। এর আগে গত ১৭ মে গোয়েন্দা দফতরে ব্যবসায়িক কাগজপত্র নিয়ে হাজির হয়েছিলেন দিলদার আহমেদ। তবে সেদিন তিনি কোন বৈধ কাগজপত্র দেখাতে পারেননি বলে জানায় শুল্ক গোয়েন্দা বিভাগ। তাই ওইদিনই বৈধ কাগজপত্র দেখানোর জন্য সময় চেয়ে শুল্ক গোয়েন্দা বিভাগের কাছে ১৫ দিনের সময় চায় আপন জুয়েলার্স কর্তৃপক্ষ। এরপর ১৫ দিন পার হলেও কোন প্রকার বৈধ কাগজপত্র জমা দিতে পারেননি তারা। ওদিকে, গ্রাহকের মেরামতের জন্য রাখা গচ্ছিত স্বর্ণ হস্তান্তরে আপন জুয়েলার্সের পাঁচ শো-রুম থেকে ১৮২ জনের মধ্যে

By আরেফিন তানজীব on মঙ্গলবার, ৩০ মে ২০১৭ ১২:২২

আপন জুয়েলার্সের পাঁচটি  শো রুম থেকে উদ্ধার করা কাগজপত্রহীন প্রায় ২৫০ শত কোটি টাকা মূল্যের স্বর্ণ ও ডায়মন্ডের বৈধ কাগজ দেখাতে পারেনি জুয়েলার্সটির মালিক দিলদার আহমেদ। শুল্ক গোয়েন্দারা আপন জুয়েলার্সের পাঁচটি  শো রুম থেকে ৪৯৮ কেজি স্বর্ণ এবং ৪২৭ গ্রাম ডায়মন্ড উদ্ধার করে। বুধবার বেলা ১২টায় রাজধানীর কাকরাইলে অবস্থিত শুল্ক গোয়েন্দা দপ্তরে আপন জুয়েলার্সেরে মালিক দিলদার আহমেদ ও তার দুই ভাই গুলজার আহমেদ ও আজাদ আহমেদকে  জিজ্ঞাসাবাদের পর এক প্রেসবিফিং এ তথ্য জানান শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত বিভাগের মহাপরিচালক মইনুল ইসলাম খান। এসময় তিনি  বলেন, আপন জুয়েলার্সের মালিকরা বুধবার হাজির হয়েছিলেন। তারা আমাদের অনেক প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন। আবার অনেক প্রশ্নের উত্তর দিতে পারেননি। স্বর্ণ ও ডায়

By আরেফিন তানজীব on বুধবার, ১৭ মে ২০১৭ ২০:১৪

আপন জুয়েলার্সের মালিক দিলদার আহমেদ ও শাফাত আহমেদের ব্যাংক হিসাব চেয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকে চিঠি পাঠিয়েছে বাংলাদেশ ফিন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিট (বিএফআইইউ)। শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের মইনুল খানের পক্ষে উপ- পরিচালক মোহাম্মদ জাকির হোসেনের গত ১১ মে সাক্ষরিত চিঠিতে জানানো হয়েছে  রাজধানীর বনানী এলাকার দি রেইন ট্রি নামীয় আবাসিক হোটেলে একটি ধর্ষণের ঘটনাকে কেন্দ্র করে স্বর্ণ ব্যবসায়ী মেসার্স আপন জুয়েলার্স এর মালিক দিলদার আহমেদ সেলিম ও তার ছেলে শাফাত আহমেদ এর চোরাচালানের সাথে সম্পৃক্ত থাকার তথ্য বিভিন্ন গণমাধ্যমে ব্যাপকভাবে আলোচিত হচ্ছে। কোন কোন তথ্যে দেখা যায়, মেসার্স আপন জুয়েলার্স এর মালিকগণ অবৈধ ব্যবসার আড়ালে ‘ডার্টি মানি’ অর্জন করেছেন, যা মানিলন্ডারিং সংক্রান্ত অপরাধ

By চ্যানেল আই অনলাইন on সোমবার, ১৫ মে ২০১৭ ০১:৩৯

আপন জুয়েলার্সের পাঁচটি শাখার চারটি থেকে মোট ২৮৬ কেজি স্বর্ণালঙ্কার এবং ৬১ গ্রাম হীরা উদ্ধার করা হয়েছে। এর সর্বমোট মূল্য ৮৫ কোটি ৩৮ লাখ টাকা। রোববার রাতে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তর গণমাধ্যমে প্রেরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানায়। আপন জুয়েলার্সের মালিকরা ‘ডার্টি মানি’ অর্জন করেছেন, যা মানিলন্ডারিং সংক্রান্ত অপরাধ হিসেবে বিবেচিত হয়েছে শুল্ক গোয়েন্দাদের কাছে। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, “এসব পণ্যের কাগজপত্র গভীরভাবে যাচাই করা হবে, অনুসন্ধানে কোনো অনিয়ম প্রমাণিত হলে প্রতিষ্ঠান ও প্রতিষ্ঠান মালিকের বিরুদ্ধে চোরাচালান ও মানি লন্ডারিং আইনে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।” অভিযানকারী দলের প্রাথমিক অনুসন্ধানে আপন জুয়েলার্সের সব শাখা কর্তৃক উপস্থাপিত দলিলাদির সঙ্গে পাওয়া সোনার গরমিল পাওয়া গেছ

By চ্যানেল আই অনলাইন on সোমবার, ১৫ মে ২০১৭ ০১:৩১

‘ডার্টি মানি’র অনুসন্ধানে আপন জুয়েলার্সের শোরুমগুলোতে শুল্ক গোয়েন্দা বিভাগের অভিযান নিয়ে ইমেজ সংকটে পড়েছেন  স্বর্ণ ব্যবসায়ীরা। রাজধানীর বৃহত্তম জুয়েলারি মার্কেট বায়তুল মোকাররমে বিভিন্ন জুয়েলার্সের ব্যবস্থাপক এবং বিক্রয় প্রতিনিধিদের সঙ্গে কথা বললে তারা এ ইমেজ সংকটের কথা জানান। এ সময় তাদের মাঝে এক ধরনের চাপা আতঙ্কও দেখা যায়। এ বিষয়ে কথা বলতেও অপারগতা প্রকাশ করেন অনেকে। রোববার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে আপন জুয়েলার্সের পাঁচটি শো রুমে অভিযান চালায় শুল্ক গোয়েন্দারা। এসময় তারা গুলশানে সুবাস্তু টাওয়ারে অবস্থিত একটি শোরুম সিলগালা করে দেন । অভিযানের খবর পেয়ে বায়তুল মোকাররমে অবস্থিত প্রতিষ্ঠানটির দুটি শো রুমই বন্ধ করে দেয় আপন জুয়েলার্স কর্তৃপক্ষ। অভিযানের

By সাখাওয়াত আল আমিন on রবিবার , ১৪ মে ২০১৭ ২১:০৭