আনিসুল হক

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) প্রয়াত মেয়র আনিসুল হকের কুলখানি গুলশানের আজাদ মসজিদে আজ বুধবার বাদ আসর অনুষ্ঠিত হবে। শনিবার রাজধানীর আর্মি স্টেডিয়ামে মেয়র আনিসুল হকের জানাজা নামাজের আগে এ কথা জানান তার ছেলে নাভিদুল হক। ৩০ নভেম্বর বাংলাদেশ সময় রাত ১০টা ২৩ মিনিটে লন্ডনের দ্য ওয়েলিংটন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আনিসুল হক মারা যান। শনিবার বনানী কবরস্থানে তাকে সমাহিত করা হয়। এর আগে আর্মি স্টেডিয়ামে তার জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে সর্বস্তরের মানুষ তার প্রতি শেষ শ্রদ্ধা জানায়। নাতির জন্ম উপলক্ষে গত ২৯ জুলাই ব্যক্তিগত সফরে সপরিবারে লন্ডন গিয়েছিলেন ৬৫ বছর বয়সী আনিসুল হক। তিনি সেরিব্রাল ভাসকুলাইটিসে (মস্তিষ্কের রক্তনালীর প্রদাহ) আক্রান্ত হয়েছিলেন। গত ৪ আগস্ট হঠাৎ অসুস্থ হ

By চ্যানেল আই অনলাইন on বুধবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০১৭ ১৩:২২

২০১০ সালে খোঁজ দ্য সার্চ সিনেমার মাধ্যমে মিডিয়া জগতে আবির্ভাব হয় অনন্ত জলিলের। ব্যবসায়ী পরিচয় ছাপিয়ে দেশের জনগণের কাছে তাঁর নতুন পরিচয় হয়ে ওঠে নায়ক অনন্ত জলিল। বেশ কয়েকটি ব্যবসা সফল চলচ্চিত্রের পর অনেক দিন ধরে চলচ্চিত্র থেকে দূরে সরে এসে ধর্মীয় কাজে মনোনিবেশ করেছেন অনন্ত জলিল। সম্প্রতি ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আনিসুল হকের মৃত্যুর পর কিছু বিভ্রান্তিকর খবরের মাধ্যমে আবারও আলোচনায় চলে আসেন অনন্ত জলিল। তার বক্তব্যকে নানা ভাবে ঘুরিয়ে অনেকেই খবর প্রকাশ করেন তিনি মেয়র হতে চাচ্ছেন। ৫ ডিসেম্বর, মঙ্গলবার রাতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তিনি তার নিজের অবস্থান এবার তুলে ধরলেন একটি পোস্টের মাধ্যমে। সবাইকে তিনি অনুরোধ করেন তাকে না জিজ্ঞাসা করে বা তার মন্তব্য না নিয়ে কোন খবর প্রকাশ কর

ঢাকা সিটি করপোরেশন উত্তরের মেয়র আনিসুল হকের মৃত্যুতে শুন্য হওয়া মেয়র পদে জিতে আসতে পারবেন, এমন প্রার্থীকেই মনোনয়ন দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। মঙ্গলবার দুপুরে জাতীয় অর্থোপেডিক ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন। আনিসুল হকের মৃত্যুর রেশ কাটতে না কাটতেই ঢাকা সিটি করপোরেশন উত্তরের নির্বাচনের আলোচনা অশোভন মন্তব্য করে ওবায়দুল কাদের বলেন: নির্বাচনি নিয়মনীতি অনুযায়ী ডিএনসিসি’র মেয়র পদ শূন্য ঘোষণা করা হয়েছে। এখানে আওয়ামী লীগ নাক গলায়নি। এক্ষেত্রে সরকারের তাড়াহুড়োর বিষয়ও নেই। প্রক্রিয়া অনুযায়ী নির্বাচন হবে। আমার মনে হয়, বিএনপির নির্বাচনে যাওয়ার প্রস্তুতি নেই। আঁখিমণি নামের এক জন্মগত প্রতিবন্ধী রোগীর দায়ি

By চ্যানেল আই অনলাইন on মঙ্গলবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০১৭ ১৪:৪৬

সদ্য প্রয়াত মেয়র আনিসুল হক মেয়র নির্বাচিত হওয়ার আগে কখনই রাজনীতিবিদ বা জনপ্রতিনিধি ছিলেন না। ছিলেন পুরোদস্তর সফল এক ব্যবসায়ী। তবে ব্যবসায়ী ব্যক্তিত্ব হয়ে উঠার আগেই সুদর্শন, আধুনিক এই মানুষটি সাধারণের কাছে বড় বেশি পরিচিত ছিলেন একজন সফল টেলিভিশন উপস্থাপক হিসেবে। ব্যবসায়ী হিসেবে নিজেকে উচ্চতায় নেওয়ার পর তিনি ব্যবসায়ীদের সর্বোচ্চ সংগঠন এফবিসিসিআই-এরও নেতৃত্ব দেন। আনিসুল হক জনপ্রতিনিধির কাতারে আসবেন এটি বোধ হয় কারো কল্পনাতেই ছিল না। কিন্তু সর্বশেষ ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র নির্বাচনে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা আনিসুল হককে মেয়র পদে দলীয় সমর্থন দিয়ে নতুন এক চমক তৈরি করেন। ২০১৫ সালের ২৮ এপ্রিল আনিসুল হক মেয়র পদে জয়ী হয়ে ৬ মে শপথ নেন। কিন্তু নির্বাচিত হওয়ার আগেই নির্বাচনী

By জাহিদ রহমান on মঙ্গলবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০১৭ ১৩:৩৬

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মূল কার্যালয়ে মেয়র আনিসুল হকের কক্ষটির দরজা বন্ধ, সোনালি নেমপ্লেটে এখনো বড় করে লেখা মেয়র, ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের নিচে এখনো লেখা আছে আনিসুল হক। নেমপ্লেটে এই নাম আর কয়েকদিন পর বদলে যাবে। কেবল এই কক্ষে এবং কক্ষের পাশে দায়িত্বপালন করা তার দুই ব্যক্তিগত সহকারির মনে প্রিয় মেয়রের জায়গাটিতে থেকে যাবে একটি নাম, আনিসুল হক। কারণ কার্যালয়ের প্রত্যেক কর্মীর মন জয় করেছিলেন মানবিক এই মেয়র। কর্মী হিসেবে নিজেদের অভিজ্ঞতা থেকে মেয়রের এই মন জয় করার ক্ষমতার কথা চ্যানেল আই অনলাইনের কাছে তুলে ধরেছেন প্রয়াত আনিসুল হকের ব্যক্তিগত সহকারি সৈয়দ আবু সালেহ ও রফিকুল ইসলাম। মেয়র আনিসুল হকের পরিবারের জন্য এবার লন্ডনে যাওয়ার টিকিট কেটে দিয়েছিলেন তার ব্যক্তিগত সহকা

By নাসিমুল শুভ on সোমবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০১৭ ২২:৩৫

মেয়র আনিসুল হকের প্রতি শোক-শ্রদ্ধায় একদিনের ছুটি পালনের পর গুলশান-২ এ ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন কার্যালয় ছিলো কর্মমূখর। মেয়রের শূন্যতায় তাঁর কার্যালয়ে কেমন পরিবেশ বিরাজ করছে, তা সরেজমিনে দেখতে মেয়র আনিসুল হকের চালু করা গুলশান এক নম্বরে ‘ঢাকার চাকা’ বাসের জন্য দাঁড়াতে হলো। মেয়রের শোকে এসি বাস সার্ভিসেও যেনো শোকের ছায়া, স্বাভাবিক সময়ের তুলনায় একটু দেরিতেই এলো বাসটি। গুলশান দুইয়ে ডিএনসিসি’র মূল কার্যালয়ের সামনে যেতেই দেখা গেলো বেশ কয়েকটি শোক ব্যানার, সেসব ব্যানারে হাসিমুখের মেয়রের সাদাকালো ছবি। ভবনের ভেতরে একটি টেবিলের ওপর আনিসুল হকের হাস্যোজ্জ্বল ছবি ফ্রেমবন্দি, আর পাশেই একটি শোক বই। বইটিতে প্রিয় মেয়র-সহকর্মীর প্রতি শোক-শ্রদ্ধা মিশ্রিত মনের বিশালত্বের কথাগুলো ছোট-ছোট বাক

By নাসিমুল শুভ on সোমবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০১৭ ২০:৫১

আনিসুল হকের মৃত্যুতে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র পদ শূন্য ঘোষণা করেছে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়। প্যানেল মেয়রসহ কাউন্সিলররা বলেছেন, তারা আনিসুল হকের শুরু করা কাজ শেষ করে তার স্বপ্ন পূরণ করবেন। ২৭ জুলাই ২০১৭ শেষ অফিস করেছিলেন মেয়র আনিসুল হক। এতোদিন এই অফিস কক্ষটি বন্ধ ছিলো। ৪ মাস পর সেই রুমটি খোলা হয়েছিলো গণমাধ্যমের জন্য। সব জায়গাতেই আনিসুল হকের সৌন্দর্যবোধ এবং মমতার ছোঁয়া। বহুতল ভবনটির ৮, ৯ ও ১০ তলার ৬০ হাজার স্কয়ার ফিটে মেয়র কার্যালয়। প্রতিটি ফ্লোরই সাজানো হয়েছে মেয়রের আধুনিক চিন্তা চেতনা থেকে। মেয়রের অফিস ঘরসহ ফ্লোরের পেইন্টিং, সোফা সেট, দেয়ালে কী রং হবে, এমন সবকিছুতেই ছিল তার পরামর্শ। মেয়র নেই, তবে তার জন্য শ্রদ্ধা ও ভালোবাসায় তার প্রিয় রুমটি পরম যত্নে রেখেছে সিটি কর্পোর

By শাকের আদনান on সোমবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০১৭ ১৭:৪৫

সমাজের নিম্ন আয়ের মানুষ কখনো মিথ্যে বলে না, একান্ত বিপদে না পড়লে। মিথ্যেভাবে ভালোবাসেও না। কোনো কপটতা নেই তাদের ভালোবাসায়। মানুষকে সম্মান দেয় মন থেকেই। তাদের এই ভালোবাসাটাই খাঁটি। কথাগুলো মনে এল গত ৩ ডিসেম্বর ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের পরিচ্ছন্নতাকর্মীদের কৃতজ্ঞতাবোধ দেখে, তাঁদের ভালোবাসার কথা পত্রিকায় পড়ে। তাঁরা প্রয়াত মেয়র আনিসুল হকের প্রতি সম্মান দেখাতে নিজেদের নির্দিষ্ট কর্মঘন্টার চেয়ে বাড়তি এক ঘন্টা কাজ করেছেন ওইদিন। এটা একজন আনিসুল হকের প্রতি অনেক বড় সম্মান প্রদর্শন। ঢাকা শহরের ঘুম ভাঙার আগে এসব মানুষ শহর পরিস্কারের জন্য কাজে নেমে পড়েন। আমরা শহরবাসীরা তাঁদের কতটুকু খবর রাখি? কিন্তু মেয়র নির্বাচিত হবার পর প্রথমেই আনিসুল হক এই মানুষদের খবর নিয়েছেন। জেনেছেন তাঁ

By সারওয়ার-উল-ইসলাম on সোমবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০১৭ ১৭:১৮

একটু একটু করে স্বপ্ন বুনে ঢাকাবাসীকে বিশাল এক স্বপ্নসমুদ্র উপহার দিয়েছিলেন মেয়র আনিসুল হক। সবাই নতুন করে স্বপ্ন দেখা শুরু করেছিলো সাজানো গোছানো এক ঢাকার। বদলাতে শুরু করেছিলো অনেক চিত্রই, নড়েচড়ে বসেছিলো বিপথে চলা মানুষগুলোও। ঢাকাকে ভিন্নভাবে নাড়ানো সেই মেয়র টুকরো টুকরো স্বপ্ন বুনেই হয়ে উঠেছিলেন বিশাল। তার ফেসবুক পেজের গত এক বছরের পোস্টগুলো বিশ্লেষণ করলে দেখা যায়, সেখানে যেমন বুনে যাওয়া কিছু স্বপ্নের গল্প আছে, আছে নানান উদ্যোগের পথরেথা, ভালোবাসা আর প্রাণপ্রাচুর্যের এক মেলবন্ধন। স্বপ্ন আনিসুল হকের সঙ্গে নতুন স্বপ্ন নিয়ে শুরু হয়েছিলো ২০১৭ সাল। ১ জানুয়ারি ফেসবুকে এক পোস্টে তিনি তুলে ধরেছিলেন সেই স্বপ্নকথা। লিখেছিলেন, সবাইকে ইংরেজি নতুন বছরের শুভেচ্ছা। ২০১৭ সালে উত্তর সিটি করপোরেশনের

By চ্যানেল আই অনলাইন on রবিবার , ০৩ ডিসেম্বর ২০১৭ ১৯:০৭

সদ্য প্রয়াত ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আনিসুল হককে এখনও দেশের জনগণ খুঁজছে ইউটিউবে আর তাকে স্মরণ করছে সামাজিক মাধ্যমে। বনানী কবরস্থানে শেষ নিদ্রায় শায়িত এই জনপ্রিয় মেয়রের উপস্থাপিত ৮০ ও ৯০ এর দশকের কিছু ভিডিও ইউটিউবে দেখছেন অনেকে। আনিসুল হক এক সময় ছিলেন দেশের জনপ্রিয় টিভি উপস্থাপক। ৯০'র দশক পর্যন্ত তিনি উপস্থাপনা চালিয়ে গিয়েছেন। সেসময় বিটিভিতে প্রচারিত ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান 'আনন্দমেলা' এবং 'অন্তরালে' উপস্থাপনা করতেন তিনি। অনুষ্ঠান দুটি ব্যাপক দর্শকপ্রিয়তা পেয়েছিল তখন। এছাড়া তিনি উপস্থাপনা করেছিলেন বলা না বলা, জলসা প্রভৃতি অনুষ্ঠান। আনিসুল হকের উপস্থাপিত পুরাতন কিছু অনুষ্ঠানের ভিডিও রয়েছে ইউটিউবে। তার মৃত্যুর পর থেকেই এ ভিডিওগুলো ইউটিউবে বাংলাদেশের ট্রেন্ডিংয়ে র

By শাহাদাত হোসেন on রবিবার , ০৩ ডিসেম্বর ২০১৭ ১৮:১৫