আজম খান

তুমি সত্যিই চলে গেছ ....বিশ্বাস হয় না। আজম খান মারা যাওয়ার পর কথাটি বলেছিলেন তার প্রথম ব্যান্ড ‘উচ্চারণ’–এর সহকর্মী প্রয়াত লাকী আখান্দ। আসলেই তিনি চলে গেছেন সবাইকে ছেড়ে। কিন্তু তার বন্ধু বিশ্বাস করতে চাননি। কেন চাইবেন? একসঙ্গে কতটি বছর গান গেয়েছেন তারা। সত্তরের দশকে বাংলাদেশের গানের রেনেসাঁর যুগে আজম খান ছিলেন অগ্রগামী যোদ্ধা। ৪০ বছরেরও বেশি সময় গানে গানে রাজত্ব করেছেন শ্রোতাদের মধ্যে। তারপর মুক্তিযোদ্ধা ও সংগীতশিল্পী আজম খান ২০১১ সালের ৫ জুন চলে যান না ফেরার দেশে। আজ আজম খানের মৃত্যুবার্ষিকী।আজম খানের পুরো নাম মোহাম্মদ মাহবুবুল হক খান।  ১৯৫০ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি আজিমপুরে জন্মগ্রহণ করেন।১৯৬৯ সালের গণঅভ্যুত্থানের সময়ে আজম খান ক্রান্তি শিল্পী গোষ্ঠীর সক্রিয় সদস্য হিসেবে পাকিস্তানি শা

By সৈয়দ নূর-ই- আলম on সোমবার, ০৫ জুন ২০১৭ ১০:৫৫

বাংলা পপ সংগীতের কিংবদন্তি আজম খানের আজ ৬৭তম জন্মদিন। গানের ভুবনে তরুণ প্রজন্মের কাজে ‘গুরু’ নামে তিনি পরিচিত। তিনি পপ সংগীতের এক উজ্জ্বল  নক্ষত্র।আজম খানের জন্ম ১৯৫০ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি। পপ সম্রাট আজম খানের কর্মজীবন শুরু হয় গত শতকের ষাটের দশকের গোড়ার দিকে। ১৯৭২ সালে তার ব্যান্ড উচ্চারণ এবং আখান্দ (লাকী আখান্দ ও হ্যাপী আখান্দ) দেশব্যাপী সংগীতের জগতে ব্যাপক আলোড়ন সৃষ্টি করে।১৯৭২ সালে বিটিভির অনুষ্ঠানে ‘এত সুন্দর দুনিয়ায় কিছুই রবে না রে’ ও ‘চার কালেমা সাক্ষী দেবে’ গান দু'টি সরাসরি প্রচার হয়। প্রচারের পর ব্যাপক প্রশংসা আর তুমুল জনপ্রিয়তা পান আজম খান।১৯৭৪-৭৫ সালের দিকে তিনি বাংলাদেশ টেলিভিশনে ‘বাংলাদেশ’ (রেললাইনের ঐ বস্তিতে) শিরোনামের গান গেয়ে হৈ-চৈ ফেলে দেন। তার পা

By চ্যানেল আই অনলাইন on মঙ্গলবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ ১১:৫২

বাংলাদেশের পপসম্রাটখ্যাত কিংবদন্তি শিল্পী 'গুরু' আজম খানের পঞ্চম মৃত্যুবার্ষিকী আজ। দীর্ঘদিন ক্যান্সারে ভুগে এই গুণী শিল্পী ২০১১ সালের ৫ জুন ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেছিলেন।‘বাংলাদেশ’, ‘ওরে সালেকা ওরে মালেকা’, ‘আলাল ও দুলাল’সহ নানা বহুল জনপ্রিয় গানের শিল্পী আজম খান ছিলেন একাধারে গীতিকার, সুরকার ও গায়ক৷ বাংলাদেশে পপ সংগীতের অন্যতম পথপ্রদর্শক তিনি। পশ্চিমা ধাঁচের পপগানে দেশজ বিষয় সংযোজন করে আজম খান গানের জগতে এক নতুন ধারা তৈরি করেন। যা সহজেই যুব সমাজকে আকৃষ্ট করে। শৈশব থেকেই নিজ আগ্রহ ও মায়ের অনুপ্রেরণায় তিনি নিয়মিত সংগীতচর্চা অব্যাহত রাখেন। আজম খানের সংগীত জীবনের শুরু ষাটের দশকে। ১৯৬৯ সালের গণঅভ্যুত্থানের সময়ে তিনি ক্রান্তি শিল্পী গোষ্ঠীর সক্রিয় সদস্য ছিলেন এ

By চ্যানেল আই অনলাইন on রবিবার , ০৫ জুন ২০১৬ ১১:১২