আগামী নির্বাচন

না ভোটের বিধান ফিরিয়ে আনার পরামর্শ দিয়েছেন সুশীল সমাজ। তবে নির্বাচনকে ‘সুষ্ঠু’ করতে ইসির সংলাপের পাশাপাশি রাজনৈতিক দলগুলোকেও নিজেদের মধ্যে সংলাপে বসার পরামর্শ দিয়েছেন তারা।সোমবার ইসির সঙ্গে প্রথম দফা সংলাপে সুশীল সমাজ এ প্রস্তাব রাখেন।আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনের সময় সংসদ ভেঙ্গে দিয়ে নির্বাচন করার পরামর্শসহ , আগামী নির্বাচনে বিচারিক ক্ষমতা দিয়ে সেনাবাহিনী মোতায়েন করার প্রস্তাব দিয়ে ইসির সংলাপে মত দিয়েছে সুশীল সমাজ। সরকার ও বিএনপিসহ সব রাজনৈতিক দলকে সমঝোতায় আনতে এই সংলাপ প্রভাব রাখবে বলে আশা করেছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার কেএম নুরুল হুদা।নিজেদের সাংবিধানিক দায়িত্ব পালনের মধ্য দিয়ে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কি করে সব দলের জন্য অংশগ্রহণমুলক করা যায় সেই চাওয়া থে

By সোমা ইসলাম on সোমবার, ৩১ জুলাই ২০১৭ ১৯:৪০

২০১৯ সালে সব দলের অংশগ্রহণে অন্তর্ভুক্তিমূলক নির্বাচন চায় যুক্তরাজ্য। প্রধান নির্বাচন কমিশনারের সঙ্গে দেখা করে ঢাকায় ব্রিটিশ হাইকমিশনার বলেছেন, ১৯৯৬ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারী কিংবা ২০১৪’র ৫ জানুয়ারীর মতো নির্বাচন দেখতে চায় না তার দেশ।সব দলের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করাই ইসি’র এখন প্রধান চ্যালেঞ্জ জানিয়েছেন সিইসি।দুপুরে আগারগাঁওয়ের নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ে প্রধান নির্বাচন কমিশনার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাত করেন ব্রিটিশ হাইকমিশনার এলিসন ব্লেইক। আধঘন্টার বেশি স্থায়ী এই বৈঠকে আগামী ২০১৯ সালের জাতীয় নির্বাচনের রোডম্যাপ নিয়ে আলোচনা হয়।বৈঠক নিয়ে বিস্তারিত জানান নির্বাচন কমিশন সচিব। জানান, ২০১৯ সালের নির্বাচনের রোডম্যাপ চূডান্ত পর্যায়ে। জুলাইয়ের প্রথম সপ্তাহে রাজনেতিক দলগুলোর সাথে আলোচনার

By মাশরুর শাকিল on মঙ্গলবার, ০৬ জুন ২০১৭ ২১:৪৬