আকতার জাহান

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক আকতার জাহান জলির মৃত্যু বিষক্রিয়ায় হয়েছে বলে জানিয়েছে ময়নাতদন্তকারী চিকিৎসক।শনিবার একথা জানায় চিকিৎসকরা। তার শরীরে আঘাতের কোনো চিহ্ন পাওয়া যায়নি।শুক্রবার বিকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের জুবেরি ভবনের ৩০৩ নম্বর কক্ষ থেকে আকতার জাহানের লাশ উদ্ধার করা হয়। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হয় অন্তত একদিন আগে তার মৃত্যু হয়।৬ সেপ্টেম্বর আকতার জাহানের ঢাকা যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু তার ফোন বন্ধ ছিল। যোগাযোগ করতে না পেরে, তার ছেলে সোয়াদ ঢাকা থেকে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষকদের সঙ্গে যোগাযোগ করে। পরে বিভাগের শিক্ষক ও বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মকর্তারা তার কক্ষে যান।সেখানে গিয়ে তারা দেখেন দরজা ভেতর থেকে বন্ধ। প

By চ্যানেল আই অনলাইন on শনিবার, ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৬ ১৫:৩৯

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষক আকতার জাহান জলির মরদেহ উদ্ধারের পর যেমন শোকে স্তব্ধ হয়ে গেছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়, ঠিক তেমনই তার জন্য শোকলিপি ছড়িয়ে পড়েছে ফেসবুকসহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে জুড়েও।শোকগাঁথায় নিজেদের ভালোবাসা প্রকাশ করছেন আকতার জাহানের পরিচিত ও প্রিয়জনেরা। ফেসবুকে অনেকেই প্রকাশ করেছেন নানা অভিব্যক্তি।ফেসবুকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষক ফাহমিদুল হক লিখেছেন, ‘জলি আপা নেই, ভাবতেই পারছি না। মা আর ছেলের এই ছবিটা আমার বাসাতেই তোলা। শিক্ষার্থীজীবনে বিভাগে আমাদের এক ব্যাচ সিনিয়র ছিলেন। আমরা একই সঙ্গে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রভাষক হিসেবে জয়েন করেছিলাম। ঢাকায় চলে আসার পরেও ভালো যোগাযোগ ছিল। আমার স

By চ্যানেল আই অনলাইন on শনিবার, ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৬ ১২:২৫