আইসিসি চ্যাম্পিয়ানস ট্রফি

পাঁচ বোলারকে ব্যবহার করেও শতরানের আগে একটি উইকেট বের করতে পারেননি বিরাট কোহলি। পাকিস্তানকে কেবল শুরুতে যা একটু অগোছালো মনে হয়েছে। সেই সময় পেছনে ফেলে ওপেনিং জুটিতে রীতিমতো রেকর্ড গড়েছে দলটি।আইসিসির কোনও আসরে এটিই পাকিস্তানের সর্বোচ্চ রানের ওপেনিং জুটি। এখন পর্যন্ত দুজনে যোগ করেছেন ১২৭ রান।  ১৯৯৬ সালে আমির সোহেল ও সাইদ আনোয়োরের করা ৮৪ রান ছিল আগের সর্বোচ্চ।আজহার ৫৯ ও ফখর ৫৬ রানে অপরাজিত থেকে ব্যাট করছেন। অথচ ভারত উইকেটের দেখা পেতে পারতো ম্যাচের শুরুতেই। ৩ রানে জীবন পান ফখর। জসপ্রীত বুমরাহর বলে উইকেটের পেছনে ধোনির হাতে ক্যাচ তুলে দেন এ বাঁহাতি ব্যাটসম্যান। পরে রিপ্লেতে দেখা যায় বলটি ‘নো’ ছিল। জীবন পেয়ে আরও সাবধানী হয়েই আজহারকে সঙ্গ দিচ্ছেন ফখর।ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে এটি ১২৯তম ম্যাচ। এ

By চ্যানেল আই অনলাইন on রবিবার , ১৮ জুন ২০১৭ ১৭:০৮

ক্রিকেট মাঠে ভারত-পাকিস্তান মুখোমুখি মানেই উত্তেজনায় ঠাসা এক ম্যাচ। খেলোয়াড়-সমর্থকদের স্নায়ুর বড় পরীক্ষা। উত্তেজনার পারদ এতটাই থাকে যে ক্রিকেট ছাপিয়ে কখনো রূপ নেয় যুদ্ধে! ওভালে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ফাইনালে তেমনি এক রোমাঞ্চকর যুদ্ধে নামছে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দল দুটি। রোববার বাংলাদেশ সময় বিকাল সাড়ে তিনটায় শুরু হবে হাইভোল্টেজ ম্যাচটি।ভারত-পাকিস্তানের মাঝে দ্বিপাক্ষিক সিরিজ অনেকদিন ধরেই বন্ধ। আইসিসি আর এসিসি আয়োজিত টুর্নামেন্টে পরস্পরের দেখা হওয়ার সুযোগ থাকে। যার জন্য অপেক্ষায় থাকেন বিশ্বের কোটি ক্রিকেটভক্ত। গ্রুপ পর্বের পর এবার শিরোপার লড়াইয়ে দেখা মিলছে দল দুটির।গ্রুপ পর্বের ম্যাচটি একেবারেই জমেনি। আধিপত্য দেখিয়ে ভারত জিতেছে ১২৪ রানের বড় ব্যবধানে। আগের ম্যাচটা একপে

By সাজ্জাদ খান on রবিবার , ১৮ জুন ২০১৭ ০০:৫১

দলের তরুণ ক্রিকেটাররা চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে নিজেদের মেলে ধরতে পারেননি। হাল ধরেছেন সিনিয়ররা। তারাই সেমিতে টেনে তুলেছেন বাংলাদেশকে। তবে তরুণরা ভালো না করলেও আস্থা হারাচ্ছেন না মাশরাফি বিন মর্তুজা। অধিনায়কের বিশ্বাস এই অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে আরো পরিণত হয়ে উঠবে তরুণরা। আর ২০১৯ বিশ্বকাপেই তাদের দেখা যাবে পরিণত পারফর্মার হিসেবে।একে তো অচেনা ইংলিশ কন্ডিশন, সঙ্গে আবার বিশ্বের সেরা আট দলের আসর। মাঠে চরম প্রতিদ্বন্দ্বিতা। এমন জায়গায় তরুণরা গিয়েই খুব ভালো খেলে ফেলবে- এতটা প্রত্যাশা করেন না মাশরাফি। তাই এখনই তরুণদের আগলেই রাখছেন। তবে তাদের খেলায় যে উন্নতি আনতে হবে সেটিও বলতে ভোলেনিনি ম্যাশ।‘তরুণদের জন্য এসব স্টেজ সহজ না। একই সাথে ওদের উন্নতিও করতে হবে। সিনিয়রদের ভালো খেলাটা সবসময়ই

By সাজ্জাদ খান on শনিবার, ১৭ জুন ২০১৭ ১৫:৪৬

ব্যাটিং সহায়ক উইকেটে ২৬৫ রানের লক্ষ্য তেমন কিছুই নয়। শক্তিশালী লাইনআপের ভারতের সামনে তো নয়ই। তাদের চাপে রাখতে শুরুতেই তুলে নিতে হত উইকেট। কিন্তু প্রথম সাফল্য যখন এল, ততক্ষণে পেরিয়ে গেছে ১৫টি ওভার, ভারতের রানও প্রায় একশর কাছাকাছি। মাশরাফির হাত ধরে টুর্নামেন্টের টপ স্কোরার ধাওয়ানের বিদায়ে মিলল কাঙ্ক্ষিত উইকেটের দেখা।ক্রিকেটে ঘুরে দাঁড়ানোর ইতিহাস যখন বিরল নয়, তখন ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নিতে মরিয়া বোলিং প্রদর্শনীর আশা ছিল মোস্তাফিজ-তাসকিনদের কাছে। কিন্তু টাইগার বোলারদের সুযোগই দেদদি দুই ভারতীয় ওপেনার। তাদের ব্যাটিং দেখে মনে হচ্ছিল, যেন পৃথিবীর সহজ কাজটা করতে নেমেছেন তারা।ইনফর্ম শেখর ধাওয়ানের ব্যাট বড় ইনিংস আভাস দিচ্ছে থেমেছে ৪৯ রানে। ৭৮, ১২৬, ৬৮-এর পর এক রানের জন্য ফিফটি হাতছাড়া। স

By চ্যানেল আই অনলাইন on বৃহস্পতিবার, ১৫ জুন ২০১৭ ২০:৫০

শুরুর ধাক্কাটা সামলে নিতে বড় জুটির দরকার ছিল। মুশফিককে নিয়ে ১২৩ রান যোগ করে সেই কাজটা ভালোভাবেই সেরে গেলেন তামিম। দলকে বড় সংগ্রহের পথে দেখিয়ে অবশ্য ৭০-এর ফিরেছেন এই বাঁহাতি।এজবাস্টনের সেমিফাইনালে তৃতীয় উইকেট জুটিতে তামিম ইকবাল ও মুশফিকুর রহিমের শতরানের জুটি দেড়শ পেরিয়ে গেছে টাইগাররা। শুরুর বিপদ কাটিয়ে যখনই পথের দিশা মিলছিল তখনই সাজঘরে সেঞ্চুরিয়ান সাকিব (১৫)।তবে ভরসা হয়ে আছেন ফিফটি পেরিয়ে যাওয়া মুশফিক। সঙ্গী গত ম্যাচে শতক করা মাহমুদউল্লাহ।কেদার জাদভের বলে বোল্ড হয়ে সাজঘরে ফেরা তামিমের ৮২ বলের ইনিংসে ৭টি চার ও একটি ছক্কা।শুরুতে ব্যাটিং উইকেটে বাংলাদেশের স্কোরটা আরও ভালো হতে পারতো। কিন্তু ৩১ রানের মধ্যে সৌম্য সরকার ও সাব্বির রহমানকে হারিয়ে কিছুটা চাপেই পড়ে বাংলাদেশ।প্রথম ওভার

By চ্যানেল আই অনলাইন on বৃহস্পতিবার, ১৫ জুন ২০১৭ ১৭:৫০

কার্ডিফে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সাকিব-মাহমুদউল্লাহর বীরত্বপূর্ণ সেঞ্চুরিতে গড়া ২২৪ রানের অনন্য জুটির প্রশংসায় পঞ্চমুখ সবাই। ৩৩ রানে চার উইকেট হারানোর পর এ দুই অভিজ্ঞ ক্রিকেটারের প্রতিরোধ বাংলাদেশকে নেয়ে গেছে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির সেমিফাইনালে। ম্যাচসেরা সাকিব বন্দনায় মেতেছে সবাই। অথচ কার্ডিফ ম্যাচের আগেও সাকিবের ফর্ম নিয়ে নানা কথা হচ্ছিলো। সাকিবের প্রসঙ্গ টেনে সাবেক ক্রিকেটার ও বিসিবির ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের প্রধান আকরাম খান বললেন, খারাপ সময়েও সবাইকে ক্রিকেটারদের পাশে থাকতে।‘যারা অনেকদিন ধরে ভালো খেলে আসছে, তারা এক-দুই মাস খারাপ করলে কিন্তু প্রশ্ন তোলাটা উচিত নয়। ভাল সময় যদি ওদের এত প্রশংসা করেন, ওদের নিয়ে পড়ে থাকেন তাহলে খারাপ সময় কেন থাকবেন না।’‘বাংলাদেশের অনেক প্লে

By সাজ্জাদ খান on রবিবার , ১১ জুন ২০১৭ ১৬:৫৮

আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে নিউজিল্যান্ডকে হারানোর পরপরই উল্লাসে মেতে ওঠেন টাইগারভক্তরা। পতাকা হাতে নেচে-গেয়ে আনন্দে মেতে ওঠেন তারা।মোসাদ্দেক হোসেনের ব্যাট থেকে উইনিং শট আসার পরপরই বাঁধভাঙা উল্লাসে ফেটে পড়ে টাইগারপ্রেমীরা। রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা থেকে আনন্দ মিছিল নিয়ে তারা জড়ো হন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসিতে।নেচে-গেয়ে যে যেভাবে পেরেছেন সেভাবেই টাইগারদের জয়ের আনন্দ ভাগাভাগি করে নেন। সবার মুখে ছিল সাকিব-মাহমু্দউল্লাহর চমৎকার পারফরমেন্সের প্রশংসা।টাইগারদের কাছ থেকে সবসময় এমন পারফরমেন্সই চান টাইগারভক্তরা।

By কাজী ইমদাদ on শনিবার, ১০ জুন ২০১৭ ০২:২৫