অস্ট্রেলিয়ায় চিকিৎসা

শিশু চৈতি,তার বয়স মাত্র তিন বছর।জন্ম থেকেই লেজের মত দেখতে তিন পা নিয়ে বেড়ে ওঠেছে মেয়েটি।বাংলাদেশে কয়েকবার অস্ত্রোপচার করেও সফল হতে পারেনি চিকিৎসকরা।অবশেষে এক চ্যারিটি প্রতিষ্ঠানের সহায়তায় দীর্ঘদিন অস্ট্রেলিয়ায় চিকিৎসা নিয়ে সফল অস্ত্রোপচার শেষে দেশে ফিরেছেন চৈতি। তার এই অতিরিক্ত অঙ্গ কীভাবে কেটে ফেলা যায় এবং কাটা স্থানে কীভাবে পূরণ করা যায় এই নিয়ে অস্ট্রেলিয়ার সার্জন এক মাস নানা পরীক্ষা চালানোর পর সফলভাবে অস্ত্রোপচার করা হয়। শিশুটির মা সীমা খাতুন বৃহস্পতিবার অস্ট্রেলিয়ার মিডিয়াকে দেওয়া এক সাক্ষাতকারে বলেন, আমি আমার পরিবারকে দেখার জন্য অপেক্ষায় আছি, আমার মেয়ের খেলা দেখার অপেক্ষায় আছি।এখন সবকিছু ভালো, মেয়েটা আমার অন্য বাচ্চাদের মত খেলতে পারবে, এখন সে অন্য সবার মত। অস্ট্

By চ্যানেল আই অনলাইন on শুক্রবার, ২৮ এপ্রিল ২০১৭ ২১:০৩