অর্থনীতি

বাণিজ্য, অর্থনীতি ও অন্যান্য অগ্রাধিকার ক্ষেত্রে সহযোগিতার সুযোগ-সুবিধা অনুসন্ধানে একটি যৌথ কমিশন গঠনে সম্মত হয়েছে ঢাকা ও প্যারিস। ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইম্মানুয়েল ম্যাক্রন ও বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মধ্যে ১২ ডিসেম্বর এলিসি প্রাসাদে এক দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। বৈঠক শেষে পররাষ্ট্র সচিব মো. শহীদুল হক বলেন, বৈঠকে উভয় নেতা অত্যন্ত আন্তরিক ও সৌহার্দ্যপূর্ণ পরিবেশে পারস্পরিক স্বার্থ-সংশ্লিষ্ট দ্বিপক্ষীয় ও বৈশ্বিক বিষয়াদি নিয়ে আলোচনা করেন। পররাষ্ট্র সচিব বলেন, বৈঠকে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ইস্যু জলবায়ু পরিবর্তনসহ পাঁচটি বিষয়ে আলোচনা হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জলবায়ু সংক্রান্ত একটি সম্মেলনে যোগ দিতে ফ্রান্স এসেছেন। পররাষ্ট্র সচিব বলেন, দুই নেতার আলোচনায় র

By চ্যানেল আই অনলাইন on বুধবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৭ ১০:০৫

জি-২০ সম্মেলন উপলক্ষে জার্মানির হামবুর্গে একত্রিত হয়েছেন বিশ্বের শীর্ষ নেতৃবৃন্দ। দেশ-বিদেশে এই বিশ্বনেতাদের বিপুল ক্ষমতার কথা আমরা প্রায় সবাই জানি, কিন্তু তারা কে কত আয় করেন তা হয়তো অনেকের অজানা। তাই বিশ্বনেতাদের বেতন-ভাতা বাবদ উপার্জনের যাবতীয় তথ্য জেনে নেয়া যাক। ডোনাল্ড ট্রাম্প যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড জে. ট্রাম্প বছরে বেতন পান চার লাখ ডলার। বাংলাদেশি টাকার হিসাবে তা তিন কোটি ২৪ লাখ ৭০ হাজার টাকা। এর পাশাপাশি তিনি বাৎসরিক ৫০ হাজার ডলার পান। এছাড়া ভ্রমণের জন্য বার্ষিক ট্যাক্স ফ্রি এক লাখ ডলার, আর বিনোদনের জন্য পান ১৯ হাজার ডলার। জাস্টিন ট্রুডো কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো বছরে তিন লাখ ৪৫ হাজার ৪০০ কানাডিয়ান ডলার বেতন পান। বাংলাদেশি টাকার হিসাবে তা প্রায়

By চ্যানেল আই অনলাইন on শনিবার, ০৮ জুলাই ২০১৭ ১৭:৩৪

বাংলাদেশের লোকসংখ্যা ১৬ কোটি, যা ফ্রান্স, জার্মানী ও নেদারল্যান্ডসের জনসংখ্যার সমান। বিশ্বের জনবহুল ১০টি দেশের মধ্যে সবচেয়ে গরীব দেশ বাংলাদেশ। তবে বিশ্বের অর্থনৈতিক উন্নয়নশীল দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশের সাম্প্রতিক অর্থনৈতিক উন্নয়ন এখন বাস্তবতার নিরিখ দাবি করে। সোমবার যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম কোয়ার্টজ’র এক প্রতিবেদনে এমনই বলা হয়েছে। প্রতিবেদনে এডিবির তথ্যের বরাত দিয়ে বলা হয়, ২০১৬ সালে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ৭ দশমিক ১ শতাংশ; যা গত ৩০ বছরের মধ্যে সবচেয়ে বেশি। গত ৬ বছর ধরেই জিডিপি রয়েছে ৬ শতাংশের বেশি। অধিকাংশ বিশ্লেষকের প্রত্যাশা জিডিপি বৃদ্ধির এই ধারা অব্যাহত থাকবে। তবে দেশের দ্রুত উন্নয়নের ফলাফল দরিদ্র জনগোষ্ঠীর কাছে পৌঁছানো না গেলে প্রব

By জসিম উদ্দিন বাদল on সোমবার, ২৯ মে ২০১৭ ২১:১৯

এবার পয়লা বৈশাখকে কেন্দ্র করে বাণিজ্যের পরিমাণ প্রায় ১২ হাজার কোটি টাকা। এর সিংহভাগই পোশাক খাতে। এছাড়া তালিকায় আছে মিষ্টান্ন জাতীয় পণ্য, হস্ত নির্মিত নানা পণ্যসামগ্রী, আসবাবপত্র এবং তৈজসপত্র। এমনকি ছোটদের মাটির পুতুল, বাঁশের বাঁশি, রঙিন বেলুন, ঢোল, ডুগডুগি, ফিতা, পুঁতির মালা, কাচের চুড়ি, ইমিটেশনের গহনাসহ বিভিন্ন পণ্যের জমজমাট বেচাকেনা হচ্ছে এই দিনকে ঘিরে। ব্যবসায়ীরা বলেন, সারা বছর তাদের যে ব্যবসা হয়, তার অর্ধেক হয় রমজান ঈদে। আর পয়লা বৈশাখে হয় মোট ব্যবসার ২৫ শতাংশ। বাকি ২৫ শতাংশ ব্যবসা হয় সারা বছর। তবে এবার বৈশাখী পণ্যের যে বেচাকেনা হয়েছে তাতে এখনই ৩০ শতাংশ ছাড়িয়ে গেছে। বেচাবিক্রির এমন অবস্থা থাকলে তা সারাবছরের মোট ব্যবসার ৩৫ শতাংশও ছাড়িয়ে যেতে পারে বলে তারা জানান। বাংলাদেশ দোকান

By জসিম উদ্দিন বাদল on বৃহস্পতিবার, ১৩ এপ্রিল ২০১৭ ১৭:৫৭

অর্থনীতিতে ঘটনাবহুল এক বছর পার করলো বাংলাদেশ। ৬ এর বৃত্ত ভেঙে প্রথমবারের মতো জিডিপি প্রবৃদ্ধি হয়েছে ৭ দশমিক এক এক শতাংশ। বিনিয়োগ ছাড়িয়েছে ২ বিলিয়ন ডলারের ম্যাজিক ফিগার, রপ্তানিতেও ইতিবাচক

By রিজভী নেওয়াজ on মঙ্গলবার, ২৭ ডিসেম্বর ২০১৬ ১৭:৪৪

৭৫ হাজার কোটি টাকার ঈদ উৎসব হচ্ছে বাংলাদেশে। ঈদ অর্থনীতির আকার কত তা নিয়ে সরকারি বা বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের নিজস্ব কোনো জরিপ নেই। বিশ্বব্যাংকের বরাত দিয়ে এই সংখ্যাটি জানিয়েছে দ্যা ডেইলি বাংলাদেশ অবজারভার। বিশ্বব্যাংকের হিসেবে, গত বছর দুই ঈদে বাংলাদেশ খরচ করেছে ৯০ হাজার কোটি টাকা। অর্থনীতির আকার বড় হওয়ায় আগামী ৬ বা ৭ তারিখের ঈদে ৭৫ হাজার কোটি টাকা খরচ হবে বলে প্রাক্কলন করেছে আন্তর্জাতিক এই ব্যাংকটি। দোকান মালিক সমিতির হিসেবও একই। তারা বলেছেন এর মধ্যে ৩৫ হাজার কোটি টাকা ব্যয় হবে তৈরি পোশাক ক্রয়ে, ৫ হাজার কোটি টাকা ফুটপাতে এবং বাকী ১০ হাজার কোটি টাকা অন্যান্য বস্তু ক্রয়ে এবং পরিবহণ খরচ বাবদ।ঈদ অর্থনীতিতে এই বাড়তি টাকার যোগান দেবে সরকারি এবং বেসরকারি খাতে কর্মরত মানু

By সাব্বির আহমেদ on সোমবার, ০৪ জুলাই ২০১৬ ১৩:১১

সকালের নাস্তার পর, দুপুরের খাবারের আগে অথবা বিকেলে চায়ের টেবিলে সিংগারা কিংবা পুরি খাননি বাংলাদেশে এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া যাবে না। হোক সে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস অথবা অফিস আদালতের চায়ের আড্ডা সেখানেও অন্যতম অনুসঙ্গ সিংগারা-পুরি। শুধু খাবার নয়, এটা দৃষ্টির বাইরে থাকা এক বিশাল অর্থনৈতিক লেনদেন।এই ধরুন, মাহফুজ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এ ছাত্রের প্রতিদিনের আড্ডায় সিংগারা চাই-ই-চাই। সেই ছোট্ট বেলা থেকেই সিংগারা খায় সে। তার রুষ্টপুষ্ট স্বাস্থ্যেও যে সিংগারা অপার অবদান তা অস্বীকার করেনি । মাহফুজ বলেন, আমি সিংগারা ছোট বেলা থেকেই খেতে পছন্দ করি। এখন দুপুর হয়ে গেছে কোন খাবার নেই; তাই সিংগারাই খাচ্ছি। বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাস, চায়ের টেবিল অথবা অফিস আদালত সবখানেই হাল্কা নাস্তা হিসেবে সিং

By কাজী ইমদাদ on শুক্রবার, ১৫ এপ্রিল ২০১৬ ০৪:৪১