অপারেটর পরিবর্তন

বহুল প্রতীক্ষিত মোবাইল নম্বর পোর্টেবিলিটি (এমএনপি) চালু করতে বাংলাদেশ-স্লোভেনিয়ার যৌথ কনসোর্টিয়াম ইনফোজিলিয়ন বিডি টেলিটেককে লাইসেন্স নোটিফিকেশন পত্র দিয়েছে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)। নোটিফিকেশন পত্র হাতে পেয়ে এই যৌথ কনসোর্টিয়ামের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, বাংলাদেশের পোস্ট পেইড-প্রিপেইড গ্রাহকরা আগামী বছরের ফেব্রুয়ারি-মার্চের পর নম্বর না বদলে অপারেটর পরিবর্তনের সুবিধা পাওয়া শুরু করবেন। এ সেবা চালু হওয়ার পর গ্রাহকরা ৩০ টাকা ফি দিয়ে নম্বর ঠিক রেখে অপারেটর পরিবর্তনের আবেদন করতে পারবেন। আবেদন করার ৭২ ঘণ্টার মধ্যে তার অপারেটর বদলে যাবে। পুনরায় অপারেটর পরিবর্তন করতে হলে তাকে ৯০ দিন অপেক্ষা করতে হবে। মঙ্গলবার বিটিআরসি’র প্রধান সম্মেলন কক্ষে এক অনাড়ম্বর অনুষ

By নাসিমুল শুভ on মঙ্গলবার, ০৭ নভেম্বর ২০১৭ ১৮:৩৮

মোবাইল নম্বর অপরিবর্তিত রেখে এ বছরের শেষ নাগাদ অপারেটর পরিবর্তনের সুযোগ পেতে যাচ্ছেন গ্রাহকরা। মঙ্গলবার বাংলাদেশ টেলিকম রেগুলেটরী কমিশন বিটিআরসি সংবাদ সম্মেলনে জানায়, তৃতীয় পক্ষের মাধ্যমে এ সুবিধা পাবেন গ্রাহকরা। সেপ্টেম্বরের মধ্যে তৃতীয় পক্ষ ঠিক করতে নিলাম কার্যক্রম শেষ করবে বিটিআরসি।সেলুলার মোবাইল ফোন লাইসেন্সধারী ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান ছাড়া বাংলাদেশী যেকোন ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান এ নিলামে অংশ নিতে পারবে। নিলামের যোগ্যতা হিসেবে ৩ বছরের অভিজ্ঞতা ও কমপক্ষে এক কোটি গ্রাহককে সেবা দেয়ার সক্ষমতা থাকতে হবে। অপারেটর পরিবর্তনে গ্রাহকের কাছ থেকে পরিবর্তিত অপারেটর সর্বোচ্চ ৩০ টাকা পর্যন্ত চার্জ নিতে পারবেন।

By চ্যানেল আই অনলাইন on মঙ্গলবার, ১৪ জুন ২০১৬ ১৭:১১