অধ্যাপক রিয়াজুল হক

শ্রেণিকক্ষে অশ্লীল চিত্র প্রদর্শনের অভিযোগে সাময়িক বহিষ্কার হওয়া ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উন্নয়ন অধ্যয়ন বিভাগের অধ্যাপক রিয়াজুল হক কাজে যোগ দিয়েছেন। আদালতের রায়ের পর তার বকেয়া বেতন ভাতা দেওয়ার ব্যাপারটিও অনুমোদন করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। জুলাইয়ের প্রথম সপ্তাহের পর থেকেই ক্লাসরুমে ফিরছেন তিনি। অধ্যাপক রিয়াজুল হক চ্যানেল আই অনলাইনকে বলেন: গত ২৮ মে প্রধান বিচারপতির রায়ের পর ২৯ তারিখেই আমি বিভাগে গিয়েছি। জুলাইয়ের প্রথম সপ্তাহ থেকে স্নাতক শ্রেণির ক্লাস শুরু করবো। আদালতের রায়ের ভিত্তিতে গত ১১ জুন অধ্যাপক রিয়াজুল হককে পাঠানো এক পত্রে গত মার্চ, এপ্রিল ও মে মাসের বকেয়া বেতন-ভাতাদি এবং নিজ পদের জন্য প্রাপ্য আনুসঙ্গিক ভাতাদি প্রদানে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের অনুমোদনের কথা জানানো

By সাখাওয়াত আল আমিন on বুধবার, ১৪ জুন ২০১৭ ১৮:৪২

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ডেভেলপমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের অধ্যাপক রিয়াজুল হককে সিন্ডিকেট কর্তৃক সাময়িক বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট। রোববার বিচারপতি কাজী রেজাউল হক ও বিচারপতি মোহাম্মদ উল্লার সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এই সংক্রান্ত রিটের শুনানি নিয়ে রুলসহ স্থগিত আদেশ দেন। আদলতে রিটের পক্ষে আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট জ্যোতির্ময় বড়ুয়া। গত ২৭ ফেব্রুয়ারি  শ্রেণিকক্ষে ‘অশ্লীল চিত্র’ প্রদর্শনের অভিযোগে সাময়িক বরখাস্ত করেন বিশ্ববিদ্যালয় সিন্ডিকেট । সেই স্থগিতের সিদ্ধান্তের  বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে রিট করা হলে হাইকোর্ট  এই আদেশ দিলেন। জেন্ডার বিষয়ক কথিত ‘অশ্লীল চিত্র’ ব্যবহারের অভিযোগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক রিয়াজুল হককে সাময়িক বহিষ্কারের ঘটনায় গত ২৮ মার্চ বিশ্

By এস এম আশিকুজ্জামান on রবিবার , ০৯ এপ্রিল ২০১৭ ১৫:৪৮