অটিস্টিক

লক্ষ্য সঙ্গীত ও চিত্রকলার মাধ্যমে অটিস্টিক শিশুদের বিনোদন ও বিকাশ।অটিজম একটি বিকাশগত সমস্যা। তবে প্রত্যেক অটিস্টিক শিশু বা ব্যক্তির মধ্যে অন্যের সঙ্গে যোগাযোগ করা, সামাজিক আদান-প্রদান এবং কিছু আচরণগত সমস্যা লক্ষ্য করা যায়, যেগুলো অটিজমের মূল তিনটি বৈশিষ্ট্য।প্রতিষ্ঠাকাল থেকে ছায়ানটের সুরের জাদু রঙের জাদু কার্যক্রমে সমন্বয়ের দায়িত্বে আছেন ড. লীডি হক। অটিস্টিক শিশুদের ক্লাসে অভিভাবকরাও উপস্থিত থাকেন।এখন এই শিশুরা নিজে নিজে ছবি আঁকছে। গাইতে আর আঁকতে যারা কিছুটা অগ্রসর, তাদের দিন দিন দক্ষতা বাড়ছে। সহপাঠীদের মধ্যে বন্ধুত্ব বাড়ছে, যোগাযোগ বাড়ছে পরস্পরের সঙ্গে।বিস্তারিত দেখুন ডিজিটাল শর্টে: 

By ওবায়দুল হক তুহিন on শনিবার, ২৬ অগাস্ট ২০১৭ ১১:৫৫

বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন শিশুদের শিক্ষার সুযোগ নিশ্চিত করছে বিশেষায়িত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রয়াস। প্রতি চারজন শিক্ষার্থীর জন্য এ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে রয়েছে একজন শিক্ষক। শিক্ষা, প্রশিক্ষণ ও থেরাপির

By মোস্তফা মল্লিক on রবিবার , ১১ ডিসেম্বর ২০১৬ ২১:১৬

বাবা-মাকে ‘সুপার প্যারেন্ট’ হওয়ার প্রশিক্ষণ দিলে তাদের অটিজমে আক্রান্ত শিশুর সমস্যায় ব্যাপক উন্নতি হয় বলে জানিয়েছেন বিজ্ঞানীরা।যুক্তরাজ্যের স্টকপোর্ট এসএইচএস ট্রাস্ট পরিচালিত একটি দীর্ঘমেয়াদী গবেষণায় পরীক্ষাধীন অভিভাবকদের নিজেদের আর তাদের অটিস্টিক শিশুর খেলা করার ভিডিও দেখানো হয়। ওই সময় একজন থেরাপিস্ট তাদের বিভিন্ন অংশে স্পষ্ট করে বুঝিয়ে দেন শিশুর সঙ্গে আরও ভালো যোগাযোগ স্থাপন করতে তাদের ঠিক কী কী করা দরকার।সেই কৌশলগুলো বাস্তবে ফলাতে গিয়ে অনেক উপকার পাবার কথা স্বীকার করেছেন অটিজমের শিকার শিশুদের বাবা-মা। এতে তাদের সন্তানের মানসিক অবস্থার অনেকটাই উন্নতি হয়েছে বলে গবেষণায় জানিয়েছেন তারা।গবেষণাটি জটিল অটিজমে আক্রান্ত শিশুদের বাবা-মায়ের ওপর পরিচালিত হয়, যে শিশুরা বেশিরভ

By তানজীমা এলহাম বৃষ্টি on বুধবার, ২৬ অক্টোবর ২০১৬ ১৪:০৩