মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন ২০১৬

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের এবারের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের শুরু থেকেই বিতর্ক। যাকে নিয়ে বিতর্কের শুরু আঘাত-প্রত্যাঘাতের তিক্ততা আর কুৎসিত প্রচারণার পর শেষ পর্যন্ত সেই ডােনাল্ট ট্রাম্পই নির্বাচিত হন। নির্বাচনী উত্তাপের সেই আচ ক্ষমতার পালাবদলের সময়ও অব্যাহত। যা নিয়ে পুরো টালমাতাল মার্কিন রাজনীতি থেকে বিশ্ব রাজনীতি। এই টালমাতালের সাগরে মার্কিন অভ্যন্তরীণ বিষয়ের সাথে আছে বৈশ্বিক অনুসঙ্গও। নির্বাচনের আগে থেকেই যেমন ভাষায় কথা বলে প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছেন ডােনাল্ড ট্রাম্প, মার্কিন রাজনীতির অঙ্গন সেই ভাষা বা প্রতিক্রিয়ার সাথে খুব একটা পরিচিত ছিল না। কিন্তু ট্রাম্পের জয়ের পর মার্কিন উদারপন্থীরাও ক্রমবর্ধমানভাবে ট্রাম্পের কায়দায় প্রতিক্রিয়া জানানো শুরু করেছেন। হোয়াইট হাউজ ছাড়া

By রেজাউল করিম on শুক্রবার, ১৩ জানুয়ারী ২০১৭ ১৭:০৯

বিশ্বখ্যাত ম্যাগাজিন টাইমের বিচারে ‘পার্সন অব দ্য ইয়ার’ নির্বাচিত হয়েছেন নব নির্বাচিত মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। আজ বুধবার পত্রিকাটির অনলাইন সংস্করণে ট্রাম্পের এ প্রাপ্তির কথা জানায়। পার্সন অব দ্য ইয়ার-নির্বাচিত হওয়ার পর ট্রাম্প এ বার্তায় বলেছেন: এটা একটা দারুণ সম্মান। আমি সত্যিই গর্বিত বোধ করছি। ডোনাল্ড ট্রাম্পকে নিয়ে এ পর্যন্ত ৯০জন ব্যক্তিকে এ সম্মানে সম্মানিত করেছে পত্রিকাটি। তবে শুধু ভালো কাজের জন্যই যে ‘পার্সন অব দ্য ইয়ার’ নির্বাচিত করা হয় তেমনটি না। ভালো কিংবা মন্দ দু’য়ের হিসেবেই এ সম্মানে সম্মানিত হওয়ার সুযোগ রয়েছে। একজন ব্যক্তি যেমন ভালো কাজ করে ওঠে আসতে পারে টাইম লাইনে ঠিক তেমনই খারাপ কাজে সরাসরি সম্পৃক্ত অথবা ইন্ধোন জুগিয়েও সুযোগ রয়েছে টাইমের  পা

By চ্যানেল আই অনলাইন on বুধবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০১৬ ২২:০৫

যুক্তরাষ্ট্রের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প মোট আড়াই কোটি মার্কিন ডলারের বিনিময়ে ট্রাম্প ইউনিভার্সিটির তিনটি মামলার মীমাংসা করেছেন বলে জানিয়েছেন নিউইয়র্কের অ্যাটর্নি জেনারেল। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন ৬ হাজার শিক্ষার্থী এই মামলাগুলো করেন। শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, তাদেরকে সারা দেশ থেকে ‘বাছাই করা সেরা’ শিক্ষকদের মাধ্যমে শিক্ষাদান করার মিথ্যা প্রতিশ্রুতি দেয়া হয়েছিল বলে তারা প্রত্যেকে ৩৫ হাজার ডলার করে দিয়ে ওই বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হয়েছিলেন। ওই বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রছাত্রীদেরকে রিয়েল এস্টেট ব্যবসার 'গোপন কৌশল' শেখানো হবে এবং এর জন্য ট্রাম্প নিজেই প্রশিক্ষক বাছাই করবেন করবেন, এমন প্রতিশ্রুতির পরই শিক্ষার্থীরা সেখানে ভর্তি হন বলে জানান। এর প্রেক্ষিতেই ৪০ মিলিয়ন বা ৪ কোটি মার্কিন ডলার ক

By অনলাইন ডেস্ক on শনিবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৬ ০৯:৩৭

নির্বাচনে প্রতিপক্ষ ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে হেরে যাওয়ার পর এই প্রথম নিজের হতাশার বিষয়ে মুখ খুললেন ডেমোক্র্যাট প্রার্থী হিলারি ক্লিনটন। নির্বাচনের এক সপ্তাহ পর এই প্রথম জনসমক্ষে এলেন তিনি। শিশুকল্যাণ বিষয়ক এক অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেয়ার সময় হিলারি বলেন, নির্বাচনে হারার পর তার মনে হয়েছিল “একটা ভালো বই নিয়ে গুটিশুটি হয়ে শুয়ে থাকি, আর কোনোদিন বাসা থেকে বের না হই”। তবে এরপরও আমেরিকান মূল্যবোধ রক্ষার জন্য লড়াই চালিয়ে যেতে এবং ‘কখনো হাল না ছাড়তে’ অনুষ্ঠানে উপস্থিত সবার প্রতি হিলারি অনুরোধ জানান। বিধ্বস্ত চেহারা এবং কোনো রকম নিরাপত্তা সদস্য ছাড়াই উপস্থিত হওয়া হিলারি বলেন, “এখন আমি স্বীকার করব যে, আজ রাতে এখানে আসাটা আমার জন্য খুব সহজ কাজ ছিল না।” তবে চিলড্রেনস ডিফেন্স ফান্ড আয়োজিত ওই অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জা

By অনলাইন ডেস্ক on বৃহস্পতিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৬ ১৩:২৮

যুক্তরাষ্ট্রের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ক্ষমতা গ্রহণের পর তার প্রথম ২শ’ দিনের কর্মপরিকল্পনার প্রথম দিকেই রেখেছেন দেশের বাণিজ্যিক সংস্কারকে। ক্ষমতা গ্রহণের আগ পর্যন্ত ট্রাম্পের অন্তর্বর্তীকালীন সহায়তাকারী দল বা ট্রানজিশন টিমের তৈরি একটি খসড়া নীতিমালায় এমন তথ্য পাওয়ার কথা জানিয়েছে সিএনএন। সিএনএন জানায়, খসড়া দলিলটি ট্রাম্পের প্রথম ২শ’ দিনের বাণিজ্য নীতিমালার একটি কাঠামো। এতে নর্থ আমেরিকা মুক্ত বাণিজ্য চুক্তি বিষয়ে পুনরায় আলোচনা, এমনকি প্রয়োজনে সেখান থেকে বেরিয়ে আসাসহ আরও বেশ কিছু মূলনীতির ওপর গুরুত্ব দেয়া হয়েছে। এই বাণিজ্যিক সংস্কার সম্পর্কে ট্রাম্প নির্বাচনী প্রচারণার সময় বেশ কয়েকবার অঙ্গীকার করেছেন। তবে ওই খসড়াটিতেই স্পষ্টভাবে উল্লেখ রয়েছে, আগামী ব

By অনলাইন ডেস্ক on বুধবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৬ ১৩:১৬

বিংশ শতাব্দীর মার্কিন কূটনীতিক দ্বিতীয় অ্যাডলাই ই. স্টিভেনসন। বুদ্ধিদীপ্ত আচরণ ও কথার জন্য সুপরিচিত এই প্রাক্তন ইলিনয় গভর্নরের একটি উক্তি বেশ বিখ্যাত: “আমেরিকায় যে কেউ প্রেসিডেন্ট হতে পারে। এই ঝুঁকিটা তোমাকে নিতেই হবে” (In America, anybody can be president. That's one of the risks you take.)। ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রেসিডেন্ট হওয়ার পর এই উক্তিটি গণমাধ্যম ও সামাজিক মাধ্যমে বারবার ঘুরে ফিরছে। ৮ নভেম্বরের নির্বাচনে মার্কিন গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতেই ডেমোক্র্যাট প্রার্থী হিলারি ক্লিনটনকে হারিয়ে প্রেসিডেন্ট হয়েছেন রিপাবলিকান ডোনাল্ড ট্রাম্প। জনগণের ভোটে হিলারি এগিয়ে থাকলেও ইলেকটোরাল কলেজের ভোট ট্রাম্পের পক্ষে বেশি পড়ায় তিনি জিতে যান। কিন্তু গণতন্ত্রের নামে হওয়া নির্বাচনে যুক্তরাষ্ট্রের ভবিষ্যতে কোন ‘তন্ত্র’টি আসতে যাচ্ছে তা ন

By তানজীমা এলহাম বৃষ্টি on বুধবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৬ ০৮:১৭

ডেমোক্রেটিক দলের প্রার্থী হিলারি ক্লিনটন মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে তার পরাজয়ের প্রধান কারণ হিসেবে দায়ী করেছেন এফবিআই প্রধান জেমস কোমিকে। পার্টির দাতাদের সঙ্গে হিলারির ফাঁস হওয়া এক ফোনালাপ থেকে এই তথ্য জানা গেছে। তার দাবি, নির্বাচনের মাত্র কয়েকদিন আগে এফবিআই প্রধান হিলারির ইমেইল নিয়ে নতুন করে তদন্তের ঘোষণা দিলে ডেমোক্র্যাট নেতার জনসমর্থনে ভাটা পড়ে। এটি তার নির্বাচনী প্রচারণার শক্তি নষ্ট করে দিয়েছিল। মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী থাকাকালে হিলারি ক্লিনটন রাষ্ট্রীয় তথ্য আদানপ্রদানে ব্যক্তিগত ইমেইল সার্ভার ব্যবহার করেছেন বলে অভিযোগ রয়েছে। ২০১৫ সালে প্রথম অভিযোগটি উঠলেও তদন্তের পর গুরুতর কিছু পাওয়া যায়নি বলে এফবিআই জানিয়েছিল। এ কারণে তার বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ না আ

By অনলাইন ডেস্ক on রবিবার , ১৩ নভেম্বর ২০১৬ ১০:৫১

ডোনাল্ড ট্রাম্প যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হওয়ার যোগ্য নন - দাবিতে নির্বাচনের আগে থেকেই অনেকে আন্দোলন করে আসছিলেন। তাই ট্রাম্প প্রেসিডেন্ট হওয়ার খবরটা তাদের কাছে ছিল ধাক্কার মতো। এ কারণে নির্বাচনের ফল ঘোষণার দিন থেকেই পুরো আমেরিকা জুড়ে চলছে ট্রাম্পবিরোধী বিক্ষোভ ও আন্দোলন। তবে এবার শুধু রাজপথে বিক্ষোভের মাঝেই সীমাবদ্ধ নেই আন্দোলন। ডোনাল্ড ট্রাম্পের বদলে তার প্রতিদ্বন্দ্বী হিলারি ক্লিনটনকে প্রেসিডেন্ট করার দাবিতে একটি পিটিশন গঠন করা হয়েছে চেঞ্জ.ওআরজি ওয়েবসাইটে। আর সেই পিটিশনের পক্ষে নাম দিয়েছে ৩৩ লাখেরও বেশি মানুষ। জনগণের মোট ভোটে হিলারিই এগিয়ে। কিন্তু যুক্তরাষ্ট্রে প্রেসিডেন্ট সেই হন যাকে ভোট দেন ইলেক্টোরাল কলেজের সদস্যরা। সেই ইলেক্টোরাল ভোটেই প্রেসিডেন্ট ন

By অনলাইন ডেস্ক on শনিবার, ১২ নভেম্বর ২০১৬ ১৬:৪১

প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে প্রার্থীতা নিশ্চিতের দৌড়ের সময় যুক্তরাষ্ট্রে মুসলিম নিষিদ্ধ করার ব্যাপারে দেয়া ডোনাল্ড ট্রাম্পের বক্তব্যটি তার ওয়েবসাইট থেকে উধাও হওয়ার দুই দিন পর তা আবারও ফিরে এসেছে। প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ার ২৪ ঘণ্টা না যেতেই বক্তব্যটি ওয়েবসাইট থেকে উধাও হয়ে যায়। তার জায়গায় বসে ট্রাম্পের বিভিন্ন প্রচারণায় ভোটারদের আর্থিক সহযোগিতা দেয়ার লিংক। ‘মুসলিম অভিবাসন রোধে ডোনাল্ড জে ট্রাম্পের বিবৃতি’ শীর্ষক লিংকটিতে ক্লিক করলেই তখন সংশ্লিষ্ট পেজে না গিয়ে লিংকটি রিডাইরেক্ট হয়ে সরাসরি হোমপেজে চলে যাচ্ছিল এবং সেখান থেকে ভোটারদের সহায়তা দেয়ার লিংকে। ইমেইলের মাধ্যমে এক আনুষ্ঠানিক বিবৃতিতে ডোনাল্ড প্রচারণা শিবিরের পক্ষ থেকে ট্রাম্পের মুখপাত্র স্টিভেন চিয়াং জান

By তানজীমা এলহাম বৃষ্টি on শনিবার, ১২ নভেম্বর ২০১৬ ১৪:২৮

প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হলে সন্ত্রাসবাদীদের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ নেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। সেই সাথে মুসলিম বিরোধী মন্তব্যও করেছিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। বিতর্কিত এই নেতা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হওয়ার পরেই ঘটে গেল নজিরবিহীন এক কাণ্ড!‌ তার বিজয়ে অভিনন্দন জানিয়েছে আল-কায়েদার শীর্ষ নেতা আবদুল্লা আল মুহায়সিনি। বিশ্বব্যাপী সন্ত্রাসী সংগঠনের উপর পর্যবেক্ষণ করা মার্কিন ওয়েবসাইট ‘সাইট ইন্টেলিজেন্স’ ও ব্রিটিশ দৈনিক ডেইলি মেইল এ খবর দিয়েছে। সারা বিশ্বে ৩ হাজারেরও বেশি শিশুকে আল-কায়দার সেনা হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করার অভিযোগ আছে আবদুল্লার বিরুদ্ধে। তিনি সিরিয়ায় আল-কায়েদার শক্তিশালী নেটওয়ার্ক আল-নুসরা ফন্টের প্রথমসারির নেতা। টুইটারে আবদুল্লা লিখেছে, ‘‌ট্রাম্পকে অভিনন্

By রেজাউল করিম on শনিবার, ১২ নভেম্বর ২০১৬ ০৯:১৭