পোপের বাংলাদেশ সফর

চলতি মাসের ৩০ তারিখে বাংলাদেশ সফরে আসছেন ক্যাথলিক খ্রিষ্টানদের প্রধান ধর্মগুরু পোপ ফ্রান্সিস। তার সফরকালে নিশ্ছিদ্র ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানিয়েছেন পুলিশের ইন্সপেক্টর জেনারেল (আইজিপি) এ কে এম শহীদুল হক। বুধবার পুলিশ হেডকোয়ার্টার্সের সম্মেলন কক্ষে পোপের সফর উপলক্ষে নিরাপত্তা ও ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা সংক্রান্ত এক সভায় এ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয় বলে চ্যানেল আই অনলাইনকে জানিয়েছেন পুলিশ হেডকোয়ার্টার্সের এআইজি (মিডিয়া এন্ড পিআর) সহেলী ফেরদৌস। সভায় আইজিপি বলেন: পোপ ফ্রান্সিস বিশ্বের অন্যতম একজন সম্মানীয় ব্যক্তি। তার বাংলাদেশ সফর আমাদের জন্য অত্যন্ত গর্বের, আনন্দের। পোপের সফরকালে পুলিশের সর্বোচ্চ নিরাপত্তা ব্যবস্থা থাকবে। সফরের সকল ভেন্যু এবং ভিভিআইপিদের যাতায়াতের সময় পুলি

By চ্যানেল আই অনলাইন on বুধবার, ২২ নভেম্বর ২০১৭ ১৯:৫৫

রোমান ক্যাথলিক চার্চের পোপ ফ্রান্সিস এই মাসের শেষে নির্ধারিত বাংলাদেশ ভ্রমণে আসার আগে বাংলাদেশের জন্য শান্তির বার্তা পাঠিয়েছেন। বাংলাদেশের উদ্দেশে পাঠানো এক ভিডিও বার্তায় তিনি বলেন, যেহেতু আর কয়েকদিন পরেই বাংলাদেশ ভ্রমণে আসার প্রস্তুতি নিচ্ছি এই সময়ে বাংলাদেশের সব মানুষকে একটি শুভেচ্ছা ও বন্ধুত্বের বার্তা পাঠাতে চাই। “আমি যিশু খ্রিস্টের ধর্মবানীর প্রচারক হিসেবে এসেছি। আমি তার পাঠানো পুনর্মিলন, ক্ষমা ও শান্তির বার্তা দিতে এসেছি।” ভিডিও বার্তায় তিনি আরো জানান, ঢাকায় আরো সব ধর্মীয় নেতাদের সঙ্গে মিলিত হতে তিনি আগ্রহী। বলেন, আমি সবাইকে প্রার্থনা করতে বলবো যেন, আপনাদের মাঝে আমার দিনগুলো আশা ও শান্তির উৎস হয়। পোপ ফ্রান্সিসের সফরের আগে রমনা ক্যাথিড্রাল চার্চে আয়োজিত এক মতবি

By চ্যানেল আই অনলাইন on মঙ্গলবার, ২১ নভেম্বর ২০১৭ ১৯:২০

বিশ্ব ক্যাথলিক খ্রীষ্ট মণ্ডলীর প্রধান ধর্মগুরু পোপ ফ্রান্সিস ৩ দিনের আধ্যাত্মিক সফরে ‘সম্প্রীতি ও শান্তির’ বার্তা নিয়ে বাংলাদেশ সফরে আসছেন ৩০শে নভেম্বর। পোপ ফ্রান্সিসের আগে স্বাধীন বাংলাদেশের অভ্যুদয়ের প্রাক্কালে উপকূলে ভয়াবহ জলোচ্ছ্বাসের পরপরই ২৬ নভেম্বর, ১৯৭০ খ্রীষ্টাব্দে ঢাকার তেজগাঁও বিমান বন্দরে সংক্ষিপ্ত যাত্রা বিরতি করেন পোপ ৬ষ্ঠ পৌল। দেশের সংগ্রাম, দুর্যোগ এবং চরম ক্রান্তিকালে পোপ ৬ষ্ঠ পৌলের সফর ছিলো আমাদের প্রিয় স্বদেশে কোন পোপের প্রথম সফর। এরপর ১৯৮৬ খ্রীষ্টাব্দের ১৯ শে নভেম্বর বর্তমানে সাধু পোপ ২য় জন পলের স্বাধীন বাংলাদেশে প্রথম পূর্ণাঙ্গ সফর। পোপ ফ্রান্সিস বাংলাদেশের সকল ধর্ম, বর্ণ, জাতি, নৃ-গোষ্ঠীর অন্তরে সম্প্রীতি ও শান্তি প্রতিষ্ঠায় গুরুত্বপূর্ণ সময়ে বা

By প্রণয় পলিকার্প রোজারিও on বুধবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৭ ২২:১২

আগামী ৩০ নভেম্বর আড়াই দিনের সফরে বাংলাদেশে আসছেন খ্রিষ্টান ধর্মগুরু পোপ ফ্রান্সিস। মঙ্গলবার ভ্যাটিকান থেকে পোপের এই সফরসূচি সম্পর্কে বিস্তারিত জানানো হয়েছে। ৩০ নভেম্বর বৃহস্পতিবার বিকাল তিনটায় এসে বাংলাদেশে পৌঁছাবেন পোপ ফ্রান্সিস। সেখানে আনুষ্ঠানিকভাবে তাকে   বরণ করে নেয়া হবে। সেখান থেকে শহীদদের স্মৃতিতে শ্রদ্ধা জানাতে পোপ যাবেন সাভারের জাতীয় স্মৃতিসৌধে। বিকাল চারটায় সেখানে শ্রদ্ধা জানানো শেষে তিনি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে শ্রদ্ধা জানাতে যাবেন বঙ্গবন্ধু মেমোরিয়াল মিউজিয়ামে। বিকাল সাড়ে পাঁচটায় সৌজন্য সাক্ষাতের জন্য রাষ্ট্রপতির বাস ভবন বঙ্গ ভবনে যাবেন তিনি। এদিন সন্ধ্যা ছয়টায় রাষ্ট্রপতির বাসভবনে সুশীল সমাজের প্রতিনিধি, কূটনৈতিক মিশনের কর্মকর্তাদ

By চ্যানেল আই অনলাইন on মঙ্গলবার, ১০ অক্টোবর ২০১৭ ২২:৪৬

আগামী ২৬ নভেম্বর থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত ৬ দিনের সফরে মিয়ানমার ও বাংলাদেশে আসছেন পোপ ফ্রান্সিস। এই সফরের প্রথম অংশে তিনি মিয়ানমারের বৌদ্ধ ভিক্ষু ও সেনাবাহিনীর সঙ্গে দেখা করে কথা বলবেন। পরে ৩০ নভেম্বর আসবেন বাংলাদেশে। মিয়ানমারে এর আগে কোন পোপ সফর করেননি।১৯৮৬ সালে পোপ জন পল বাংলাদেশে এসেছিলেন। সফরে পোপ ফ্রান্সিস মিয়ানমারের প্রধান প্রধান বৌদ্ধ ভিক্ষুদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন, দেশটির সেনাবাহিনীর জেনারেলসহ প্রধান রাজনৈতিক নেতা অং সান সু চির সঙ্গেও সাক্ষাৎ করবেন। মঙ্গলবার ভেটিকান থেকে প্রকাশিত পোপের সফর কর্মসূচি থেকে জানা যায়, এই সফরে পোপ বৌদ্ধ নৃগোষ্ঠীদের নিয়ে মিয়ানমারে একটি এবং বাংলাদেশে একটি গণবক্তৃতা করবেন। ২৬ নভেম্বর ১০ ঘন্টার বিমান ভ্রমণ শেষে ২৭ তারিখ সোমবার ইয়াংগুন ইন্টারন

By চ্যানেল আই অনলাইন on মঙ্গলবার, ১০ অক্টোবর ২০১৭ ১৯:৪৫