সেলিব্রিটি সোশ‌্যাল

দেশের ইতিহাসে একটি আলোচিত ঘটনা নারায়ণগঞ্জের সাত খুন। মঙ্গলবার সেই হত্যা মামলার রায় ঘোষণা করেন সর্বোচ্চ আদালত। এই আলোচিত মামলা নিয়েই ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েছেন অনলাইন এক্টিভিস্ট ও গণজাগরণ মঞ্চ কর্মী আকরামুল হক।ফেসবুকে এক পোস্টে তিনি লিখেছেন, নারায়ণগঞ্জে আলোচিত সাত খুন মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিদের করা জেল আপিল ও রাষ্ট্রপক্ষের করা ডেথ রেফারেন্সের (মৃত্যুদণ্ড অনুমোদন) ওপর রায়ে হাইকোর্ট ১৫ জনের ফাঁসি, এছাড়া ১১ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও ৯ জনের বিভিন্ন মেয়াদের কারাদণ্ড দিয়েছেন।এরপরে আকরামুল হক লিখেছেন, রাজনীতির সাথে ওতপ্রোতভাবে জড়িয়ে পড়ার দায় নিতে হলো র‍্যাব সদস্যদের। যে রাজনৈতিক সংস্কৃতির ফলে র‍্যাব সদস্যরা খুনোখুনিতে জড়িয়েছিলেন, সে রাজনীতি এখনও চলমান। এ রাজনৈতিক ধ

বৃহস্পতিবার বন্যার্তদের জন্য শাহবাগে ত্রাণ সংগ্রহ করতে গিয়ে হামলার শিকার হওয়ার পরদিন এ বিষয়ে প্রেস কনফারেন্স করে ফেরার পথে পুনরায় হামলার শিকার হয়েছেন গণজাগরণ মঞ্চের মুখপাত্র ইমরান এইচ সরকার। বন্যা কবলিতদের সহায়তা করতে গিয়ে তার উপর পরপর দু’টি হামলার শিকার হওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে সামাজিক যোগাযোগের অন্যতম বড় মাধ্যম ফেসবুকে সমালোচনার ঝড় উঠেছে।তবে এই সমালোচনার পাশাপাশি অনেকে আবার তার উপর এই আক্রমণে খুশি হয়ে ফেসবুকে বিভিন্ন পোস্ট দিচ্ছেন। তাদের এই খুশি হওয়া এবং এই হামলার সমালোচনা করে সাংবাদিক কবির য়াহমদ এক ফেসবুক স্ট্যাটাসে বিষয়টির সমালোচনা করেছেন।ফেসবুক স্ট্যাটাসে তিনি লিখেন, ‘ইমরান এইচ সরকার সম্পর্কে আমার ব্যক্তিগত অবস্থান অনেকেরই জানা। তবু এসময়ে তাকে আক্রমণ করা দিয়ে কিছু লোকে

জিয়াউর রহমানের শাসনামলে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা যখন পুলিশি গ্রেফতার-নির্যাতনে দিশেহারা, তখন কর্মীদের গ্রেফতার ঠেকাতে লাইসেন্সড বন্দুক হাতে একাই দাঁড়িয়েছিলেন পটুয়াখালীর সাবেক সাংসদ হাবিবুর রহমান মিয়ার স্ত্রী মিসেস শামসুন্নাহার।শুক্রবার ফেসবুকে দেয়া এক স্ট্যাটাসে তার (ভাবী) কথা স্মরণ করেছেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক অ্যাড. আফজাল হোসেন।ফেসবুক স্ট্যাটাসে তিনি লিখেছেন: ‘ছবিতে আমার পাশের ভদ্রমহিলার নাম মিসেস শামসুন্নাহার। আশির দশকের মাঝামাঝি সময় পর্যন্ত পটুয়াখালীর আওয়ামীলীগের রাজনীতির সাথে যারা জড়িত ছিলেন তাদের এই মানুষটিকে ভুলবার কথা নয়। তবে আমি নিশ্চিত বর্তমান প্রজন্মের অনেকেই তাকে চিনবেন না। অথচ এক সময় তার বৈঠকখানাই ছিল স্হানীয় আওয়ামী

১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবসে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের প্রভাষক মো: মাহবুবুল হকের ছাত্রদের সঙ্গে পড়া বোঝানোর ঘটনাকে কেন্দ্র করে ঔ শিক্ষককে এক মাসের জন্য ছুটি পাঠানো হয়েছে। এই ঘটনার বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে লিখেছেন সাংবাদিক শরিফুল হাসান।তিনি তার ফেসবুকে এক পোস্টে লিখেছেন :পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় আর শিক্ষার ইতিহাসে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের এই ঘটনা কলঙ্কিত হয়ে থাকবে। আমার মনে হয় বঙ্গবন্ধুকে ছোট করতেই এই উদ্যোগ। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী প্লিজ কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের দিকে নজর দিন। একজন মুক্তিযোদ্ধার সন্তান মাহবুবুল হক। ১৫ আগস্ট শোক দিবসের কর্মসূচি শেষে ছাত্রদের অনুরোধে তিনি তাদের পড়া বোঝানোর জন্

By চ্যানেল আই অনলাইন on বৃহস্পতিবার, ১৭ অগাস্ট ২০১৭ ১৭:৫৮

বিভিন্ন জেলায় বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি না হওয়ায় আশঙ্কায় রয়েছে বন্যা কবলিত মানুষ। নতুন করে প্লাবিত হচ্ছে বসতবাড়ি, ফসলি জমি ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।এসব বন্যা কবলিত মানুষের জন্য সম্ভব হলে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেয়ার দেশবাসীর কাছে অনুরোধ করেছেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো: শাহরিয়ার আলম।তিনি তার ফেসবুক স্ট্যাটাসে লিখেছেন: সম্ভব হলে এবার কোরবানি ঈদ এবং কোরবানির উদ্দেশ্যে গরু বা খাসি কেনা নিয়ে একটু ভাববেন। উত্তরের যে এলাকাগুলোতে বন্যা হচ্ছে সেই এলাকাগুলোতে প্রচুর কোরবানি উপযোগী গবাদি পশুও আছে।যারা বিশেষ করে একাধীক কোরবানি দেন, তারা উত্তরের বন্যাকবলিত এলাকা থেকে পশুগুলো ক্রয় করতে পারেন এবং সেইসব স্থানেই কোরবানি করতে পারেন।হঠাৎ বন্যার কবলে পড়া মানুষেরা অনেক উপকৃত হবেন। আমিও তাই করব ইনশা

সারাদেশের বিভিন্ন জেলায় বন্যার পরিস্থিতির অবনতি হয়েছে। কয়েক লাখ মানুষ পানিবন্দী হয়ে পড়েছেন। অতি কষ্টে খাদ্য সংকটে দিন কাটছে তাদের। অনেকে হয়ে পড়েছেন গৃহহারা।পানিবন্দী এসব মানুষদের পাশে দাঁড়াতে আহবান জানিয়েছেন মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন’এর সমন্বয়ক শাহানা হুদা।সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাসে তিনি লিখেছেন: দেশ তলিয়ে যাচ্ছে, আমরা কি সেভাবে উৎসব পালন করতে পারি ? না করা উচিৎ ? সামনে কোরবানির ঈদ। আমরা যে যার মত করে, সামর্থ অনুযায়ী কোরবানি দিয়ে থাকি। অনেকেই আছেন যারা প্রয়োজন ও কোরবানির নিয়মের বাইরে গিয়েও দেদার খরচ করেন কোরবানির পেছনে। তারা বলতেই পারেন আমাদের টাকা আছে, আমরা খরচ করবো।লাখ টাকার গরু থেকে শুরু করে আরও বেশি টাকার উটও রয়েছে এর মধ্যে। আমি অনেককেই দেখেছি কে কত টা

আইয়ুব বাচ্চু। জনপ্রিয় ব্যান্ড তারকা। এলআরবির প্রধান। আজ ১৬ আগস্ট তার জন্মদিন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে তিনি একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন। তিনি লিখেছেন,‘যেখানে ছিলাম ওখানেই আছি। মা হারা

By চ্যানেল আই অনলাইন on বুধবার, ১৬ অগাস্ট ২০১৭ ০০:২১

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু তার অসমাপ্ত আত্মজীবনীতে একটি নদীর নাম ভিন্ন ভিন্ন ৭টি নাম ব্যবহার করা হয়েছে।  সাংবাদিক ও নদী গবেষক শেখ রোকন ফেসবুক স্ট্যাটাসে এ বিষয়ে লিখেছেন।তিনি লিখেছেন: এক নদীর সাত নাম! বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনীতে অনেকবার উল্লিখিত হয়েছে 'মধুমতী'। এছাড়া আরও অন্তত চারটি নাম রয়েছে নদীটির। প্রথম থেকে বলি- কুষ্টিয়া অঞ্চলে গঙ্গা থেকে উৎপত্তিকালে এর নাম গড়াই, তারপর বৃহত্তর ফরিদপুরে এর নাম মধুমতী। বাগেরহাটে এর নাম কালীগঙ্গা, আরও ভাটিতে গিয়ে বলেশ্বর, তারও ভাটিতে সুন্দরবন পেরিয়ে মোহনায় এর নাম হরিণঘাটা।এছাড়া আরও দুটো নাম পেতে পারে নদীটি। প্রথমটি 'কচা'। পিরোজপুরে প্রবেশের মুখে কালীগঙ্গা নদী বলেশ্বর ও কচা নামে বিভক্ত হয়ে পরে আবার মিলিত হয়ে বলেশ্বর নামেই প্রবাহিত।দ্বিতীয়

টুঙ্গীপাড়া জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিসৌধ। সেই সৌধে কিছুটা সময় কাটানো এক সুন্দর স্মৃতির কথা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করেছেন জাতীয় ক্যান্সার গবেষণা ইন্সটিটিউট ও হাসপাতালের ক্যান্সার ইপিডেমিওলজি বিভাগের প্রধান ডা. মো. হাবিবুল্লাহ তালুকদার রাসকিন।তিনি তার পোস্টে লিখেছেন,'অনেকে শিরোনাম দেখেই চমকে উঠবেন জানি। ইদানীং দেখছি দলবেঁধে অনেকেই টুঙ্গীপাড়া যাচ্ছেন, অবিরাম সেলফি বর্ষণ করছেন। এই মৌসুমী ভক্তদের ভীড়ে আমার টুঙ্গীপাড়ার স্মৃতি কারো কাছে পানসে মনে হবে। কেউ কেউ আমাকেই মৌসুমী ভক্ত মনে করবেন।ক্ষমতাসীন দলের ভক্তসংখ্যা বাড়ে জ্যামিতিক হারে। ঝাঁকে ঝাঁকে। এটা আগেও দেখেছি। বিএনপিপন্থী চিকিৎসকদের সংগঠন ড্যাব গঠনের কিছুদিনের মধ্যে, ৯১ সালের জাতীয় নির্বাচনে আশ

নারী-পুরুষের চিরন্তন সর্ম্পক ও সংসার জীবনের নানা বিষয়ের উপমা হিসেবে একজন উবার চালকের উদাহরণ টেনে ফেসবুকে একটি পোষ্ট দিয়েছেন শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ছাত্রনেতা ও তথ্যপ্রযুক্তিবিদ প্রশান্ত রায়।তিনি ফেসবুকে লিখেছেন,"ক'দিন আগে এক উবার চালকের ঘটনা বলছিলাম। যেখানে তার স্ত্রী রোজ তাকে রাত তিনটায় উঠে রান্না করে ভোর পাঁচটায় বেরিয়ে যাওয়ার সময় সাথে দিয়ে দেয় যেন সময়মত খেয়ে নেয়। ফোন করে খবরাখবর নেয়, কোথায় আছে, এবং খেয়েছে কি-না।এই ঘটনায় কেউ কেউ নারীবাদী ও পুরুষতান্ত্রিকতার কথা তুলেছেন। পুরুষতান্ত্রিক পুরুষরা তো এমনটা চায়। ইত্যাদি ইত্যাদি।এখন আসি আরেকজন চালকের কথায়। গত মাসে মালয়শিয়া গিয়েছিলাম। সেখানে ট্যুরে যে গাড়ীতে দুদিন ঘুরেছি, গাড়ীর চালকের নাম মি. সাথিয়া।সাথিয়ার আদি নিবাস ভারতের তামি