লাইফস্টাইল

সামিরা আর আকাশের বেশ অনেক বছরের প্রেম। কিন্তু বিয়ের পরে সব এলোমেলো। বিয়ের পরে সামিরার সঙ্গে সময় কাঁটাতে যেন একটুও আগ্রহ পান না আকাশ। বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডায় কিংবা কলিগদের সঙ্গে ফুর্তি করেই সিনের অধিকাংশ সময় কাটিয়ে ফেলেন। বাড়ি ফেরার পরে সামিরা যখন বিষয়টি নিয়ে অভিযোগ করেন, তখন আকাশ হেসেই বিষয়টি উড়িয়ে দেন। সামিরাকে 'ইমোশনাল ফুল'ও বলেছেন কয়েকবার। ফলে ভীষণ একাকীত্বে ভোগেন সামিরা। মাঝে মাঝে তার মনে হয়, এই সম্পর্ক হয়তো টেকানোই সম্ভব হবে না। সম্পর্ক নিয়ে এমন ঝামেলায় ভোগেন অনেক নারীই। মাঝে মাঝে অনুশোচনাও হয় এটা ভেবে যে, সম্পর্কের প্রতি এত আবেগ, এত মায়া তার একারই কেন? পুরুষের আবেগ কি সত্যিই কম? একজন নারী যখন কাউকে ভালোবাসেন, তখন সত্যিই সবটুকু আবেগ দিয়ে ভালোবাসেন। শুধু ভালোবাসার ক্ষেত্রে নয়, জীবনের

By নুসরাত শারমিন on বুধবার, ১৭ জানুয়ারী ২০১৮ ১৪:৫৫

দুধে হলুদ মিশিয়ে পান করার পদ্ধতি নতুন কিছু নয়। প্রাচীনকাল থেকেই কাশি-ঠাণ্ডায় এবং ক্ষত সাড়াতে হলুদ-দুধ ব্যবহার করা হয়। অনেক ওষুধের বিকল্প তাই হলুদকে সুপারফুডও বলা হয়। তবে হলুদ-দুধের একটি গুন হয়তো অজানা। তা হলো ওজন কমানোর গুণ। হলুদ দুধ দ্রুত ওজন কমাতে সহায়তা করে। ভাবছেন কীভাবে? জেনে নিন ফিচারে। মেটাবোলিজম বাড়ায়: হলুদের থারমোজেনিক প্রোপার্টি মেটাবোলিজম বাড়াতে সহায়তা করে। আদারই কাছাকাছি জাতের এই মশলাটিতে সোগাওল এবং জিনগারোল আছে যা মেটাবোলিজম বাড়িয়ে ক্যালরি পোড়াতে সহায়তা করে। ডায়েটারি ফাইবার: হলুদে ডায়েটারি ফাইবার আছে যা ওজন বৃদ্ধি ব্যাহত করে এবং ফ্যাট কমাতে সহায়তা করে। আর দুধের সঙ্গে হলুদ মিশিয়ে পান করলে হলুদের কার্যকারিতা আরও বেড়ে যায়। প্রোটিনের উৎস: ওজন কমাতে হলে শরীরে পর্য

By নুসরাত শারমিন on মঙ্গলবার, ১৬ জানুয়ারী ২০১৮ ০৯:০০

অন্ধকার রুম, আরামদায়ক তাপমাত্রা আর নরম বিছানা। ঘুমানোর জন্য একদম পারফেক্ট পরিবেশ তাই না? কিন্তু এই আরামদায়ক পরিবেশে ঘুমানোর সময় যদি আপনাকে কেউ জানায় যে আপনার বালিশের নিচেই লুকিয়ে আছে আপনার নীরব ঘাতক! রাতের ঘুমটা কি শান্তিতে ঘুমাতে পারবেন? নীরব ঘাতক: রাতে ফেসবুক চালাতে চালাতে ঘুমিয়ে পড়া হয় প্রতিনিয়ত। ঘুমানোর আগে মোবাইল ফোন রাখা হয় বালিশের নিচে। তার কারণ হলো সকালে কর্মস্থলে যাওয়ার জন্য এলার্ম দেয়া থাকে। ঘুম না ভাঙলে মহা বিপদ। কিন্তু বালিশের নিচের এই ফোনটাই আপনার নীরব ঘাতক। কারণ ফোনের কারণে মারাত্মক স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে আছেন আপনি। কী হয় ফোন রাখলে: মোবাইল ফোন থেকে ক্ষতিকর রেডিয়েশন নির্গত হয় যা মস্তিষ্কের ক্ষতি করে। এর ফলে মাথা ব্যথা, মাসল পেইন এবং অন্যান্য স্বাস্থ্য সমস্যা দেখা

By নুসরাত শারমিন on সোমবার, ১৫ জানুয়ারী ২০১৮ ০৯:৩২

রূপকথার মতো রাজপুত্র ঘোড়ায় চড়ে এলো, রাজকন্যাকে বিয়ে করে নিয়ে গেলো। এরপর সুখে শান্তিতে বসবাস। বিয়ে বলতে এমনটাই মনে করা হয়। কিন্তু ব্যাপারটি কি আসলেই এত মিষ্টি? নাকি কিছু টক-ঝাল বিষয়ও আছে এর মাঝে? বিয়ের পরে প্রথম কয়েকটা দিন ভালোই কাটে। আনুষ্ঠানিকতা, ছবি তোলা, মধুচন্দ্রিমা, নতুন আত্মীয়দের সঙ্গে পরিচয় সব মিলিয়ে ভালোই যায় শুরুর কয়েকদিন। কিন্তু এরপরেই শুরু হয় ঝামেলা। অধিকাংশ দম্পতিই বিয়ের পর প্রথম একটা বছর বেশ কঠিন সময় কাটান। ভাবছেন সুমধুর দাম্পত্যে আবার কী ঝামেলা? জেনে নিন ফিচারে। শ্বশুরবাড়ির সঙ্গে বনিবনা না হওয়া: রান্নাঘরে গিয়েই নতুন বউ এর মেজাজ গরম। সব কিছুতেই শাশুড়ির খবরদারী। নিজের সংসারে যেন কিছুই করার অধিকার নেই। আর এই নিয়ে স্বামীর কাছে অভিযোগ। স্বামী বেচারাও বিপদে। মায়ের পক্ষ নিলে

By চ্যানেল আই অনলাইন on রবিবার , ১৪ জানুয়ারী ২০১৮ ১১:৫২

গর্ভাবস্থায় জ্বর এলে কিংবা মাথা ও শরীর ব্যথা হলে এসিটামিনোফেন জাতীয় ওষুধ দেখা যায়। এসিটামিনোফেনের প্রচলিত নাম হলো প্যারাসিটামল। প্যারাসিটামলে সাময়িক উপশম হলেও তা গর্ভের সন্তানের দীর্ঘমেয়াদী ক্ষতি করে ফেলতে পারে। আমেরিকার গবেষকরা জানিয়েছেন গর্ভকালীন প্রথম তিনমাসে প্যারাসিটামল সেবন করলে গর্ভের কন্যা সন্তানের দেরীতে কথা শেখার সম্ভাবনা থাকে। যেসব মায়েরা প্যারাসিটামল সেবন করেননি তাদের তুলনায় এই ঝুঁকি ৬ গুন বেশি বলে জানিয়েছেন গবেষকরা। নিউ ইয়র্কের মাউন্ট সিনাই হাসপাতালের গবেষকদের এই গবেষণাটি চালানো হয়েছে ৭৫৪ জন অন্তঃসত্ত্বা নারীর উপর। তাদের সবাই আট থেকে তের সপ্তাহের অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন। তাদেরকে প্রশ্ন করা হয় যে তারা কতগুলো প্যারাসিটামল সেবন করেছেন। সেই সঙ্গে তাদের মূত্

By নুসরাত শারমিন on শুক্রবার, ১২ জানুয়ারী ২০১৮ ০৯:০১

ব্যথা তো কত কারণেই হতে পারে। শরীরের নানা সমস্যার প্রাথমিক উপসর্গ হতে পারে ব্যথা। শরীরের সঙ্গে মনের সম্পর্ক নিবিড়। আর তাই, মনের নানা সমস্যার উপসর্গও হতে পারে ব্যথা। মনের বিভিন্ন আবেগের কারণে শরীরের বিভিন্ন স্থানে ব্যথা অনুভূত হতে পারে। মিলিয়ে দেখুন তো, আপনার কোনো ব্যথার সঙ্গে মনের কোনো আবেগ সংক্রান্ত সমস্যা মিলে যায় কিনা। মাথা ব্যথা: মাথা ব্যথা অনেকেরই নিত্যদিনের সমস্যা। মানসিক চাপের কারণে মাথা ব্যথা হতে পারে। তাই প্রতিদিন পরিমিত বিশ্রাম নিন এবং মানসিক চাপমুক্ত থাকার চেষ্টা করুন। ঘাড় ব্যথা: ঘাড় ব্যথায় ভুগছেন? ভেবে দেখুন তো কাউকে ক্ষমা করতে পারছেন না কিনা? কিংবা নিজেকেই হয়তো ক্ষমা করতে পারছেন না। ঘাড় ব্যথা হলে পছন্দের মানুষদের কথা ভাবুন। জটিল সম্পর্কের কথা না ভাবাই ভালো।

By চ্যানেল আই অনলাইন on বুধবার, ১০ জানুয়ারী ২০১৮ ১৩:৫১

বাড়িতে অনেক লোক আছেন। কিন্তু মশা যেন আর কাউকে না দেখে শুধু আপনাকেই দেখছে। মশার কামড়ে অতিষ্ঠ আপনি প্রায়ই ভাবেন, মশা কেন আপনাকেই এত ভালোবাসে! কিছু মানুষকে মশা একটু বেশিই কামড়ায়। রুমে একটি মশা থাকলেও তার অস্তিত্ব টের পেয়ে যান তারা। এর পেছনে অবশ্য বেশ কিছু কারণ আছে। জেনে নিন কারণগুলো। ব্লাড গ্রুপ 'ও' খাবারের ক্ষেত্রে মানুষের যেমন পছন্দ থাকে, তেমনই মশারও কিন্তু আছে। মেডিক্যাল এন্টোমোলজি জার্নালের একটি গবেষণায় জানা গেছে যে মশা টাইপ 'ও' রক্তের প্রতি বেশি দুর্বল। অর্থাৎ 'ও' পজিটিভ বা 'ও' নেগেটিভ রক্তের গ্রুপ হলে মশা তাদেরকে বেশি কামড়ায়। বিয়ার পান করলে পশ্চিম আফ্রিকার একটি গবেষণায় দেখা গেছে যে যারা বিয়ার পান করেন, তাদেরকে মশা বেশি কামড়ায়। বিশেষ করে মাত্রই বিয়ার বা অ্যালকোহল পান করে এলে ত

By চ্যানেল আই অনলাইন on বুধবার, ১০ জানুয়ারী ২০১৮ ১১:৫৩

বিরক্ত নাকি হতাশ? এমনও হতে পারে আপনি বুঝতেই পারছেন যা যে কোনটিতে ভুগছেন আপনি। কারণ বিরক্তি আর হতাশা এই দুটি অনুভূতির মধ্যে পার্থক্য বেশ সূক্ষ্ম। কিন্তু বিরক্তি সাময়িক হলেও হতাশা হতে পারে মারাত্মক সমস্যা। তাই হতাশাকে বিরক্তির মুখোশে ঢেকে না ফেলাই ভালো। কারণ সময়মত হতাশাকে সনাক্ত করতে না পারলে তা আক্রান্ত ব্যক্তির ক্ষতির কারণ হতে পারে। জেনে নিন বিরক্তি এবং হতাশার মধ্যে পার্থক্য। হতাশা কী? হতাশা হলো এক ধরনের মানসিক সমস্যা যা মনকে বিষণ্ণ করে তোলে। দীর্ঘ সময় ধরে নিজেকে অসুখী এবং শূন্য মনে হয়। ঘুমের সমস্যা হয় এবং নিজেকে মূল্যহীন মনে হতে থাকে। এছাড়াও নানা রকম ভুল ধারণা তৈরি হয় নিজের সম্পর্কে। হতাশার কারণ অনেককিছুই হতে পারে। শারীরিক, মানসিক, সামাজিক সব কিছুই হতাশা তৈরি করতে পারে। এমনকি জ

By চ্যানেল আই অনলাইন on সোমবার, ০৮ জানুয়ারী ২০১৮ ১৭:৪৫

হাতের সঙ্গে হাত ঘষছেন, কিন্তু কিছুতেই উষ্ণ হচ্ছেনা না। পায়েরও একই অবস্থা। মোজা পরেও লাভ হচ্ছে না। এই শীতে যদি এমন সমস্যায় পড়ে থাকেন তাহলে ঝাল খাবার খান। গবেষকরা জানিয়েছেন, ঝাল খেলে হাত এবং পা উষ্ণ থাকে। সাথে আরও কিছু পদ্ধতি জানিয়েছেন তারা। জেনে নিন ফিচারে। ঝাল খাবার: ঝাল খাবার রক্ত সঞ্চালন বাড়ায়। ঝাল খাবার খেলে শরীরের তাপমাত্রা বেড়ে যায় এবং হৃদস্পন্দন বেড়ে যায়। ফলে রক্ত সঞ্চালন বৃদ্ধি পায়। মরিচে প্রচুর ভিটামিন এ এবং সি আছে যা রক্তনালী এবং রক্ত কণিকাগুলোকে ভালো রাখে। ফলে রক্ত সঞ্চালন প্রক্রিয়া স্বাভাবিক থাকে। শীতে রক্ত সঞ্চালন কমে গেলে সাধারণত হাত-পা ঠাণ্ডা হয়ে থাকে। তাই ঝাল খাবার খেলে এই সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া সম্ভব। অরোরা হেলথ কেয়ারের উইসকনসিন ভিত্তিক ইন্টার্নিস্ট ডা. জন ব্র

By চ্যানেল আই অনলাইন on সোমবার, ০৮ জানুয়ারী ২০১৮ ০৯:১৪

বিলাসবহুল লঞ্চ চলবে নদীর বুকে, আর সেখানে পর্যটনের নানা অফার আর আয়োজন নিয়ে অনুষ্ঠিত হবে ২য় ভাসমান ট্যুরিজম মেলা ও নৌ আনন্দ ভ্রমন-২০১৮। ১৩টি ট্যুর অপারেটরের যৌথ উদ্যোগে এই মেলা অনুষ্ঠিত হবে ১৯ জানুয়ারি। মেলাতে পর্যটন বিষয়ক বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান তাদের স্টলে দেশি-বিদেশি পর্যটকদের সামনে তাদের কার্যক্রম-অফার তুলে ধরবে। এই আয়োজনের সহ-আয়োজক হিসেবে সঙ্গে থাকছে বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ড, পর্যটন কর্পোরেশন, দেশের টিভি ও রেডিও চ্যানেল এবং টুরিস্ট পুলিশ। রাজধানীর সদরঘাট টার্মিনাল থেকে সকালে যাত্রা শুরু করে চাঁদপুর পর্যন্ত গিয়ে আবার ফিরে আসবে লঞ্চটি। এরমধ্যেই অংশগ্রহণকারীদের জন্য শিশুদের চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা, জাদু প্রদর্শনী, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের পাশাপাশি অ্যাপায়নের ব্যবস্থা থাকছে

By চ্যানেল আই অনলাইন on রবিবার , ০৭ জানুয়ারী ২০১৮ ১১:৫৫