রাঙ্গামাটি

পাহাড় ধসের ঘটনায় ৬৮দিন পর ভারী যানবাহন চলাচলের জন্য রাঙামাটি-চট্টগ্রাম সড়ক খুলে দেয়া হয়েছে।গত ১৩জুন রাঙামাটিতে ভয়াবহ পাহাড় ধসের ঘটনায় সাপছড়ির শালবন এলাকায় রাঙামাটি-চট্টগ্রাম সড়কের প্রায় একশ মিটার জায়গা ধসে গিয়ে সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। বন্ধ হয়ে যায় রাঙামাটির সঙ্গে দেশের অন্যান্য স্থানের সড়ক যোগযোগ।ঘটনার ৯ দিনের মাথায় বাংলাদেশ সেনাবাহিনী সড়কের ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় বিকল্প সংযোগ সড়ক নির্মাণ করে হালকা যানবাহনের জন্য খুলে দেয়।তবে বিকল্প সড়কে ভারী যান চলাচল করতে না দেওয়ায় ব্যবসা বাণিজ্যসহ নানা সংকট দেখা দেয় রাঙামাটিতে। সড়ক ও জনপথ বিভাগ সাপছড়ি এলাকায় ধসে যাওয়া পাহাড়ের অংশে নতুন করে বেইলী ব্রীজ নির্মাণের কাজ শুরু করে।দীর্ঘ ২মাস পর বেইলী ব্রীজ নির্মাণ করে সড়ক ও জনপথ

By চ্যানেল আই অনলাইন on সোমবার, ২১ অগাস্ট ২০১৭ ১৫:৪৫

টানা বৃষ্টিতে আবারও দেশের বিভিন্ন এলাকায় পাহাড় ধসের আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। এর পরিপ্রেক্ষিতে স্থানীয় প্রশাসন পাহাড়ের নিচে বসবাসকারীদের সরিয়ে নেয়ার চেষ্টা চালাচ্ছে। এছাড়া যেসব এলাকায় বন্যার পানি নেমে গিয়েছিল সেখানেও বৃষ্টি আর উজানের ঢলে নতুন করে দেখা দিয়েছে বন্যা।বান্দরবান ভারী বৃষ্টিতে পার্বত্য জেলা রাঙামাটি, খাগড়াছড়ি ও বান্দরবানে আবারও পাহাড় ধসের আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। বান্দরবান সদর, লামা, আলিকদম, নাইক্ষ্যংছড়িসহ ৭ উপজেলায় সর্তকতা জারি করেছে স্থানীয় প্রশাসন। এসব এলাকায় কমপক্ষে ১০ হাজার পরিবার পাহাড়ের নিচে ঝুঁকিপূর্ণভাবে বসবাস করছে।রাঙামাটি রাঙামাটিতে আবারও পাহাড় ধসের আশঙ্কায় আতঙ্কিত জেলাবাসী। পর্যটন শিল্পের ওপর অনেকটাই নির্ভরশীল এই জেলা এখন পর্যটন শুন্য হয়ে পড়েছে।

রাঙ্গামাটি প্রতিনিধি: গত তিন দিনের টানা বৃষ্টিতে রাঙ্গামাটি-খাগড়াছড়ি সড়ক ধসে আবারো বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে সড়ক যোগাযোগ। গত ১৩ জুন পাহাড় ধসে বন্ধ হওয়ার এক মাস পর ১৭ জুলাই সড়কটি হালকা যান চলচলের জন্য খুলে দেয়া হয়েছিল। কিন্তু টানা বৃষ্টিতে এক সপ্তাহের ব্যবধানে আবারো সড়ক বন্ধ হয়ে যাওয়ায় দুর্ভোগে রাঙ্গামাটি ও খাগড়াছড়িবাসী।গত ১৩ জুনে রাঙ্গামাটিতে ভয়াবহ পাহাড় ধসের ঘটনায় যে ৪টি সড়ক মারাত্মক ক্ষতিগ্রস্ত হয় এর মধ্যে রাঙ্গামাটি-খাগড়াছড়ি সড়ক ছিল অন্যতম। এ কারণে দীর্ঘ একমাস ওই সড়কে যান চলাচল বন্ধ ছিল।সড়কটি সংস্কার করে গত ১৭ জুলাই হালকা যান চলাচলের জন্য খুলে দেয় রাঙ্গামাটি সড়ক বিভাগ। কিন্ত এক সপ্তাহ যেতে না যেতেই কয়েকদিনের টানা বৃষ্টিতে সড়কটি ধসে পড়ায় রাঙ্গামাটি-খাগড়াছড়ির সাথে সরাসরি সড়ক যোগাযো

By চ্যানেল আই অনলাইন on বৃহস্পতিবার, ২৭ জুলাই ২০১৭ ১৩:৫৬

মুনসুর আহমেদ, রাঙামাটি প্রতিনিধি: রাঙামাটির লংগদু সদর ইউনিয়নের গোলাছড়ি এলাকায় ইউপিডিএফ’র একটি আস্তানায় সেনাবাহিনী অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ অস্ত্র-গোলাবারুদ ও ইউপিডিএফ’র বইসহ বিপুল সরঞ্জাম ও গুরুত্বপূর্ণ নথিপত্র উদ্ধার করেছে।বুধবার মধ্যরাত থেকে বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত গোলাছড়ি এলাকায় এ সেনা অভিযান পরিচালিত হয়।লংগদু সেনা জোন অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল আব্দুল আলিম চৌধুরীর নেতৃত্বে সেনাবাহিনীর এ অভিযানে সন্ত্রাসী আস্তানা থেকে ২ টি একে ৪৭ রাইফেল, ২টি চাইনিজ রাইফেল, ১৫২ রাউন্ড গুলি, ৪ টি ম্যাগজিন, ৮ টি ইউনির্ফম, চাঁদার রশিদ, ইউপিডিএফের বিভিন্ন নথিপত্র সহ বিভিন্ন সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়।লংগদু জোন অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল আব্দুল আলিম চৌধুরী জানান, ইউপিডিএফ এর একটি সশস্ত্র গ্রুপ সন্ত্রা

By চ্যানেল আই অনলাইন on বৃহস্পতিবার, ২৯ জুন ২০১৭ ১২:১৯

রাঙামাটি থেকে ফিরে: ভয়াবহ ধসের পর রাঙামাটির পাহাড়গুলো এখন ক্ষত-বিক্ষত।এযাবৎকালের সবচেয়ে ভারী বৃষ্টিপাত,বজ্রপাথে থরথর করে কেঁপেছে পাহাড়,ধসেছে স্বল্প আয়ের মানুষের ঘর-বাড়ির ওপরে।তাই রাঙামাটির আকাশে ঘন মেঘ জমতে দেখলে আঁতকে ওঠেন রেশমা, রুবেল, নাসিমার মতো স্বজন, সহায়-সম্বলহারা মানুষেরা।দুই সন্তানের জনক সুমন জানেন না যেখানে পুনর্বাসন করা হবে সেখান থেকে রুটি-রুজির ব্যবস্থা করতে পারবেন কিনা।বাবা-মাকে হারিয়ে মীম-সুমাইয়াদের শেষ ভরসা এখন চাচার আশ্রয়।কারণ এই কয়দিন টেলিভিশন কেন্দ্র, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর (বিএডিসি), বেতার কেন্দ্র, রাঙামাটি সরকারি কলেজ,শিশু একাডেমিতে মাথাগোঁজার ঠাঁই পেলেও স্থায়ীভাবে কোথায় থাকবে তারা এটাই এখন বড় প্রশ্ন।পাহাড়ের কোলে যেখানে তাদের ঘর-বাড়ি ছিল সেখানে এখন টি

By নাসিমুল শুভ on বুধবার, ২৮ জুন ২০১৭ ২২:৪৩

রাঙামাটি থেকে: ঈদের দিন নামায পড়ে বাসায় ফিরনি সেমাই না খেয়ে আগে রাঙামাটি সরকারি কলেজের আশ্রয়কেন্দ্রে হাজির ইমরান। ঈদে বাড়িতে আসা অতিথিদের মতই আশ্রয় নেয়া মানুষদের হাতে খাবার তুলে দিচ্ছেন রূপা। হলুদ-সবুজ সালোয়ার কামিজে ঈদের সাজ থাকলেও এবার তিনি বান্ধবীদের সঙ্গে শহরে ঘুরছেন না, তুলছেন না সেলফি। এবারে তার ঈদ আনন্দের কারণ  ভালো খাবার পাওয়া মানুষদের মুখের হাসি।চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের শিক্ষার্থী ইমরান, রাঙামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী রূপার মতো এবারের ঈদকে আর্তের সেবায় উৎসর্গ করেছেন রাফিন, জোবায়েরের মতো ৬৫ জন তরুণ।রাঙামাটিতে ভয়াবহ পাহাড় ধসের পর খোলা আশ্রয় কেন্দ্রগুলোতে ৯ দিন ধরে সেনা সদস্যদের সহায়তা করেছেন তারা। প্রায় সবার বাড়িই র

By নাসিমুল শুভ on সোমবার, ২৬ জুন ২০১৭ ২৩:১২

রাঙামাটি থেকে: সেদিন একের পর এক যখন পাহাড় ধসে পড়ছে; চারদিক পরিণত হয়েছে মৃত্যুপুরীতে-সেই অবস্থায় প্রাণে বাঁচতে আশ্রয়কেন্দ্রে এসেছিলেন অসংখ্য আতঙ্কিত মানুষ। মৃত্যুঝড় পেরিয়ে জীবনযুদ্ধে বিজয়ী সেইসব মানুষ মেতে উঠেছে ঈদের আনন্দে। সেই রঙিন আনন্দে রঙিন হয়ে উঠেছে রাঙামাটির অাশ্রয়কেন্দ্রগুলোও।সোমবার প্রশাসন ও সেনাবাহিনীর সরবরাহ করা সেমাই, পাউরুটি আর জুস- দিয়েই পাহাড় ধসে দুর্গত মানুষের ঈদ আনন্দের শুরু। ত্রাণের শাড়ি-পাঞ্জাবি পরে পরিবার-সন্তানদের নিয়ে দিনটা আলাদা ভাবে কাটে আশ্রয়কেন্দ্রের মানুষগুলোর।বেলা গড়িয়ে যখন দুপুর তখন যেনো এই মানুষগুলোর সামনে ঈদের আমেজ নিয়ে হাজির হয় পোলাও, মুরগি, ডিমের কোরমা,  কোমল পানীয় এবং আপেলে ভর্তি জলপাই রঙের আর্মি জিপ।খাবার আসার আগেই দুই মেয়েকে ঈদের সাজে সাজাচ্ছি

By নাসিমুল শুভ on সোমবার, ২৬ জুন ২০১৭ ১৭:৩৩

রাঙামাটি থেকে: কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর আশ্রয়কেন্দ্রে পাহাড় ধসে ক্ষতিগ্রস্ত বাঙালি আর পাহাড়িদের আবাসন আলাদা হলেও ঈদ উপলক্ষে প্রশাসন ও বেসরকারি সংস্থার বিশেষ ত্রাণ থেকে বঞ্চিত হয়নি কেউ। ঈদ উপলক্ষে আশ্রয়কেন্দ্রে থাকা মুসলমানদের জন্য ত্রাণ হিসেবে এসেছে শাড়ি,পাঞ্জাবি। দুর্যোগে একই ছাদের নিচে মাথাগোঁজা পাহাড়িরা মলিন পোশাকের বদলে পেয়েছে পিনন, লুঙ্গি-গেঞ্জি।বাংলাদেশ টেলিভিশনের ভবনে পাশাপাশি থাকা পাহাড়ি-বাঙালি পরিবারগুলোর সঙ্গে কথা বলা যাবে কি না জিজ্ঞেস করলে সেনাবাহিনীর দায়িত্বরত ল্যান্স কর্পোরাল হায়দারুল হাসিমুখে পথ দেখিয়ে নিয়ে গেলেন। সিঁড়ি বেয়ে ওপরে উঠার সময় দেখা গেল সিঁড়িঘরে একটি খালি বেডিংয়ের উপর দুটি ছাপা শাড়ি।ওপর তলায় একটি কক্ষে আছে পারভীন আক্তার আর নাসরিন আক্তারদের

By নাসিমুল শুভ on রবিবার , ২৫ জুন ২০১৭ ২৩:৪৩

রাঙামাটি থেকে: হাসি আর আনন্দের বদলে রাঙামাটির আশ্রয়কেন্দ্রে সহায়-সম্বল আর স্বজন হারা মানুষদের চোখে অশ্রু ঝরাচ্ছে ঈদের চাঁদ। পাহাড় ধসে মানবিক বিপর্যয়ে কেউ কেউ আবার যেন এই চাঁদরাত্রে একেবারে অনুভূতি শূন্য। ঈদে কী খাবেন, কী পরবেন এসব নিয়ে কোনো ভাবনা নেই নারীদের মধ্যে। আর পুরুষরাও বলতে পারলেন না সোমবার ঈদের নামায কোথায় পড়বেন। কারণ চেনা মসজিদটিও এখন পাহাড়ের ধসে পড়া মাটির নিচে।রাঙামাটি সরকারি কলেজ, বাংলাদেশ টেলিভিশন কেন্দ্র, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর, উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়, শিশু একাডেমিতে অস্থায়ী আশ্রয়কেন্দ্রগুলোর অসহায় মানুষের মধ্যে সব মিলিয়ে এরকম শূন্যতা, অনিশ্চয়তার মিশ্র অনুভূতি।আশ্রয়কেন্দ্রে থাকা নাসিমা বললেন, এক শ’ টাকা সালামি চাওয়া ১০ বছরের ছেলেটাকে পাহাড় ধসের পর খ

By নাসিমুল শুভ on রবিবার , ২৫ জুন ২০১৭ ২১:৫৯

মনসুর আহম্মেদ, রাঙ্গামাটি প্রতিনিধি: রাঙ্গামাটিতে রোববার সকালে জেলা প্রশাসন, সেনাবাহিনী ও আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে পাহাড় ধসে দুর্গতদের ঈদের নতুন কাপড় বিতরণ করা হয়েছে। ত্রাণ সাহায্য অব্যাহত রয়েছে।রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ১৯ টি আশ্রয়কেন্দ্রে আশ্রিত পরিবারের সব সদস্যের মাঝে নতুন কাপড় বিতরণ করা হয়। সাবেক পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী দীপংকর তালুকদার ও জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মানজারুল মান্নান সবার হাতে নতুন কাপড় তুলে দেন।রাঙ্গামাটি সেনাবাহিনী তাদের পরিচালনাধীন ৭টি আশ্রয়কেন্দ্রে পাহাড় ধস হওয়ার পর আশ্রিতদের মাঝে নতুন পোশাক বিতরণ করেছে। সকালে রাঙ্গামাটি সরকারী কলেজে রাঙ্গামাটি রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল গোলাম ফারুক ও তার স্ত্রী বাংলাদেশ বেতার রাঙ্গামাটি কেন্

By চ্যানেল আই অনলাইন on রবিবার , ২৫ জুন ২০১৭ ১৩:৩৭