নীলফামারী

নীলফামারী থেকে আনোয়ারুল আলম: উত্তরাঞ্চলের একমাত্র বিমান বন্দর নীলফামারীর সৈয়দপুর। সেখানে দিনে ছয়টি ফ্লাইটে গড়ে প্রায় ৪শ যাত্রী যাতায়াত করেন। এছাড়া আকাশ পথের চাহিদা দিন দিন বেড়ে চলেছে। তাই উত্তরাঞ্চলের উন্নয়ন ও ব্যবসা বাণিজ্যের প্রসারে সৈয়দপুর বিমান বন্দরকে আর্ন্তজাতিক মানের করার দাবি জানিয়েছেন যাত্রী ও ব্যবসায়ীরা। সৈয়দপুর বিমানবন্দরের যাত্রা শুরু হয় ১৯৭৯ সালে। শিল্প, বাণিজ্য, কৃষিসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে এগিয়ে যাওয়ায় ওই অঞ্চল থেকে আমদানি, রফতানি বেড়েছে। রংপুর বিভাগের মাঝামাঝিতে সৈয়দপুর বিমানবন্দরের অবস্থান হওয়ায় আন্তর্জাতিক মানে রূপান্তর করা গেলে শিল্প, বাণিজ্য, কৃষিসহ সব ক্ষেত্রে প্রসার ঘটবে। সাশ্রয় হবে আমদানি, রফতানিতেও। বাংলাদেশ, ভারত, নেপাল, ভুটান এ এয়ারপোর্ট ব্যবহা

By চ্যানেল আই অনলাইন on রবিবার , ১৪ মে ২০১৭ ১১:১৯

দীর্ঘ ২ বছর ধরে বন্ধ রয়েছে নীলফামারী মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রের অপারেশন থিয়েটার । এতে চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন গর্ভবর্তী মায়েরা। ১৯৯১ সালে সরকার, গর্ভবতী মায়েদের বিনামূল্যে স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করতে নীলফামারীতে ১০ শষ্যার মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রে অপারেশন থিয়েটার চালু করে। চালু করা হয় গর্ভবতীদের জন্য নিরাপদ সিজারিয়ান সেকশন। সরকারিভাবে এই অপারেশন থিয়েটারে সরবরাহ করা হয় অত্যাধুনিক প্রযুক্তিসম্পন্ন যন্ত্রপাতিও। অথচ ২ বছর ধরে অ্যানেস্থেশিয়ার চিকিৎসক না থাকায় বন্ধ রয়েছে সিজারিয়ান কার্যক্রম। এ পরিস্থিতিতে বিভিন্ন প্রাইভেট ক্লিনিক ও হাসপাতাগুলোতে দৌড়াতে হচ্ছে গর্ভবতী মায়েদের। দরিদ্র পরিবারগুলো হচ্ছে আর্থিক ক্ষতির শিকার। দু'বছর আগেও এই মা ও শিশু কল্যাণ কেন্ত্রে প্রতিমাসে ৭শ’ থেকে ৮শ

By চ্যানেল আই অনলাইন on বুধবার, ১২ এপ্রিল ২০১৭ ১১:২৪

নীলফামারীর পল্লী এলাকায় কমিউনিটি ক্লিনিক চালু হলেও কাঙ্খিত সেবা পাচ্ছেন না সাধারণ মানুষ। সেখানে নেই যন্ত্রপাতি ও ওষুধসহ প্রয়োজনীয় উপকরণ। নীলফামারীর পল্লী এলাকার মানুষের চিকিৎসা সেবার একমাত্র প্রতিষ্ঠান এই কমিউনিটি ক্লিনিক। কিন্তু এখানে সর্দি, কাশি, জ্বর আর ছোট খাট রোগের ওষুধ ছাড়া আর কোন ওষুধ বা পরিক্ষা-নিরিক্ষার ব্যবস্থা নেই। গাইনি চিকিৎসক আর মেডিকেল অফিসার না থাকায় কোনো সেবাই পাচ্ছেন না গর্ভবতী মায়েরা। তবে এত সব সংকটের অভিযোগ মানতে রাজী নন সংশ্লিষ্ট ডাক্তাররা। সিভিল সার্জন ডা. আব্দুর রসিদ সংকটগুলো আমলে নিয়ে পর্যায়ক্রমে সমাধানের আশ্বাস দিয়েছেন। সুষ্ঠু স্বাস্থ্যসেবার পাশাপাশি ক্লিনিকের পরিচ্ছন্নতা নিশ্চিত করারও দাবি স্থানীয়দের। আরো দেখুন নীলফামারী প্রতিনিধি আনোয়ারুল আ

By চ্যানেল আই অনলাইন on শনিবার, ১৮ মার্চ ২০১৭ ১১:৪১

নীলফামারীর ওপর দিয়ে বয়ে যাওয়া ২২টি নদ-নদী পলি জমে ভরাট হয়ে গেছে। নদীর বুকে কৃষক আবাদ করছেন বোরো ধান, গম, পেয়াজসহ বিভিন্ন ফসল। কিন্তু নদী না বাঁচলে এ অঞ্চল মরুভূমিতে পরিণত হবে, আশংকা এলাকাবাসীর। আনোয়ারুল

By চ্যানেল আই অনলাইন on বৃহস্পতিবার, ১৬ মার্চ ২০১৭ ১২:০১

নীলফামারীর সৈয়দপুর ১০০ শয্যার হাসপাতালে প্রয়োজনীয় অবকাঠামো, যন্ত্রপাতি এবং ওষুধ থাকা সত্ত্বেও জনবল সংকটে সৈয়দপুরসহ আশপাশের এলাকার প্রায় ৮ লাখ মানুষ চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। বিস্তারিত

By চ্যানেল আই অনলাইন on মঙ্গলবার, ২৪ জানুয়ারী ২০১৭ ১৬:৫৬

নীলফামারীর জলঢাকায় গত শনিবার থেকে সোমবার পর্যন্ত দরিদ্র শীতার্ত পরিবারগুলোর মাঝে কম্বল বিতরণ করেছেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল প্রসিকিউটর ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজ। সম্প্রতি তার প্রয়াত

By চ্যানেল আই অনলাইন on সোমবার, ২৩ জানুয়ারী ২০১৭ ২১:৩৭

সরকারি গেজেট প্রকাশ পর্যন্ত প্রকাশ হয়েছে, কিন্তু পাঁচ বছরেও চালু হয়নি নীলফামারীর চিলাহাটি স্থলবন্দর। স্থানীয়দের আশা, ভারতের পশ্চিমবঙ্গের হলদিবাড়ির সাথে আর্ন্তজাতিক চেকপয়েন্টের মধ্যে সরাসরি

By চ্যানেল আই অনলাইন on শনিবার, ২১ জানুয়ারী ২০১৭ ১১:৫৩

জিংকসমৃদ্ধ ব্রি ধান ৬২ চাষ শুরু হয়েছে নীলফামারীতে। অল্প সময়ে ভালো ফলন এবং একই জমিতে বছরে চারটি ফসল চাষ করতে পারায় বেশ লাভবান কৃষক। অপুষ্টি ও মানবদেহে জিংকের অভাব পূরণে বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইন্সটিটিউট উদ্ভাবিত বোরো মৌসুমের ফসল জিংকসমৃদ্ধ ব্রি ধান ৬২’র আবাদ শুরু হয়েছে আমন মৌসুমেও। ব্রি ধান ৬২ আবাদ করে ৯৫ থেকে একশ’ দিনেই ফলন পান কৃষক। গড়ে ফলন পাওয়া যায় ১২ থেকে ১৫ মণ। ধান কেটে ওই একই জমিতে বারি সরিষা, আলু, মুগসহ চারটি ফসল আবাদ করতে পারেন কৃষক। হারভেস্ট প্লাস ও আরডিআরএস বাংলাদেশ এর আর্থিক সহযোগিতায় বোরো মৌসুমে বীজ সংরক্ষণ করে জেলার দু’হাজার কৃষক প্রায় পাঁচ হাজার বিঘা জমিতে আমন মৌসুমে চাষ করেছেন জিংকসমৃদ্ধ ব্রি ধান ৬২ । হারভেস্ট প্লাস-বাংলাদেশ’রকান্ট্রি ম্যানেজার ড. খায়রুল বাশার জান

By অনলাইন ডেস্ক on সোমবার, ২৪ অক্টোবর ২০১৬ ১০:০০