শত বছরের ঐতিহ্য নিয়ে টিকে আছে মানিকগঞ্জের হাজারি গুড়। স্বাদে গন্ধে মন মাতানো ওই গুড় উৎপাদনের সঙ্গে বংশ পরম্পরায় যুক্ত রয়েছে কয়েকটি পরিবার। তাদে এই ঐতিহ্য কতদিন ধরে রাখা যাবে, তা নিয়ে সংশয়ে তারা।

মনে হতে পারে ব্যতিক্রম কোনো প্রাকৃতিক উৎসের রস থেকে তৈরি হয় হাজারি গুড়। আসলে এ গুড়েরও উৎস খেজুরের রস। কিন্তু গাছীর রস নামানো থেকে শুরু করে গুড় তৈরির মধ্যে রয়েছে আদি এক প্রক্রিয়া। কাল থেকে কালান্তরে অনেক কিছুর পরিবর্তন হলেও হাজারি গুড় তৈরির এই প্রক্রিয়ার কোনো পরিবর্তন নেই।

স্থানীয়রা বলেন, হাজারি গুড়ের নাম ছড়িয়ে দিয়ে গেছেন খোদ রাণী এলিজাবেথ। এসময় বেশ কয়েকটি হাজারি পরিবার যুক্ত ছিল এই গুড় তৈরির কাজে। এখন টিকে আছে তার মাত্র কয়েকটি।

মানিকগঞ্জে গুড়ের বাজারে খেজুরের গুড়ের বিশাল পসরা বসলেও হাজারি গুড় সেখানে অনন্য। তাই এর দাম প্রচলিত পাটালির তুলনায় পাঁচ থেকে দশগুণ।

বিস্তারিত দেখুন ভিডিও রিপোর্ট: