শতক হাঁকিয়ে দলকে বাঁচাতে পারেননি জহুরুল ইসলাম। খেলাঘরের কাছে হেরে গেছে তার দল গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্স। আর সাইফ হাসানের দারুণ শতকে ব্রাদার্স ইউনিয়নকে হারিয়ে ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেটে টানা তৃতীয় জয় তুলে নিয়েছে আবাহনী।

বিকেএসপির ৩ নম্বর মাঠে মঙ্গলবার খেলাঘর সমাজকল্যাণ সমিতির বিপক্ষে জহুরুল খেলেছেন ১৪২ বলে ১০২ রানের ইনিংস। মুমিনুল হকের ৪৬ ও ভারতীয় রিক্রুট রজত ভাটিয়ার ৬১ রানের ইনিংসের সুবাদে বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা ৫০ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে তুলেছে ২৪৭ রান।

জবাবে ৯ বল বাকি থাকতেই ৫ উইকেটে ম্যাচ জিতে নেয় খেলাঘর কল্যাণ সমিতি। অনূর্ধ্ব-১৯ দলের উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান মাহিদুল ইসলাম অঙ্কনের ৮৫ রানের পাশাপাশি ভারতীয় ব্যাটসম্যান অশোক মেনারিয়ার ৫১ কল্যাণে চলতি প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেটে প্রথম তুলে নিয়েছে খেলাঘর।

মূর্তিকারিগর

ফতুল্লার খান সাহেব ওসমান আলি স্টেডিয়ামে এক সাইফ হাসান ছাড়া জ্বলে উঠতে পারেননি আর কোনো ব্যাটসম্যানই। বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দলের অধিনায়ক খেলেছেন ১০৮ রানের এক ইনিংস। আবাহনীর দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ইনিংসটি এনামুল হক বিজয়ের। তিনি করেছেন ৪১ রান। তাতে নির্ধারিত ৫০ ওভার শেষে সব উইকেট হারিয়ে ২৬৬ রানের লক্ষ্য দাঁড় করায় মাশরাফী বিন মোর্ত্তজার দল।

২৬৭ রানের জবাবে ব্যাট করতে নেমে মেহেদি হাসান মিরাজ ও সানজামুল ইসলামের বোলিং তোপে ৮৬ বল আগেই ১৩০ রানে অলআউট হয় ব্রাদার্স। মেহেদি ও সানজামুল দুজনেই নিয়েছেন সমান ৩টি করে উইকেট। দুই উইকেট নিয়েছেন আরেক স্পিনার সাকলায়েন সজীব।