ঘরোয়া লিগে ভালো করে জাতীয় দলে জায়গা ফিরে পেতে উন্মুখ হয়ে আছেন পেসার রুবেল হোসেন। শুক্রবার মিরপুর একাডেমি মাঠে অনুশীলন শেষে সে কথাই বললেন।

‘জাতীয় দলের বাইরে থেকে খেলা দেখা আসলে খুবই কষ্টদায়ক। কিন্তু ক্রিকেটে এটা হবেই। সব খেলোয়াড়ের জীবনেই হবে,’ মন্তব্য করে রুবেল বলেন, ‘আসলে আমি এটাকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়েছি। আমাকে আবার ভালো বোলিং করতে হবে। ভালো বোলিং করেই আমাকে জাতীয় দলে জায়গা করে নিতে হবে।’

বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগের (বিসিএল) দুই ম্যাচে ১০ উইকেট নিয়েছেন তিনি। যার মধ্যে পাঁচ উইকেট এক ইনিংসে। মধ্যাঞ্চলের বিপক্ষে শেষ ম্যাচে দুই ইনিংসে বল করেছেন ৩২ ওভার। লম্বা সময় ধরে বল করতে পারার সক্ষমতা দেখিয়েছেন দক্ষিণাঞ্চলের এই পেসার। নিউজিল্যান্ড সফরে দ্বিতীয় টেস্টে থাকলেও ভারতে একমাত্র টেস্টের দল থেকে বাদ পড়েন।

বিসিএলে নিজের বোলিং পারফরম্যান্স নিয়ে খুশি এই টাইগার পেসার। প্রয়োজনে পরিশ্রম বাড়ানোর প্রত্যয় তার কণ্ঠে, ‘আমি যখন যেখানেই খেলি, সেরা ক্রিকেট খেলার চেষ্টা করি। আমি অনেক পরিশ্রম করছি আর মাঠে এর প্রয়োগ করার চেষ্টা করছি। ভালোই মনে হচ্ছে আমার ছন্দ। এটাকে আমি ধারাবাহিক করতে চাই। আমাকে আরও অনেক কঠিন পরিশ্রম করতে হবে।’

রোববার বিসিএলের চতুর্থ রাউন্ডে দক্ষিণাঞ্চলের প্রতিপক্ষ উত্তরাঞ্চল। তিন ম্যাচে ১১ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের শীর্ষ রয়েছে দলটি। তবে এই রাউন্ডে দক্ষিণাঞ্চলে যোগ হচ্ছেন ইমরুল কায়েস, সৌম্য সরকার ও লিটন দাস। জাতীয় দলের এই তিন ব্যাটসম্যান যোগ হওয়ায় রুবেল জানালেন জেতার জন্যই খেলবে তার দল, ‘প্রতিপক্ষ পয়েন্ট টেবিলে এক নম্বরে আছে। তারা অবশ্যই খুব ভালো দল। এখন আমাদের দলে তিন-চার জন জাতীয় দলের খেলোয়াড় ঢুকছে। পরের ম্যাচ অবশ্যই জেতার জন্য খেলবো।’