বিটকয়েনসহ বিভিন্ন ক্রিপ্টোকারেন্সির লেনদেনের উপর নিষেধাজ্ঞার পরিকল্পনা করছে সাউথ কোরিয়া সরকার। দেশটির বিভিন্ন ক্রিপ্টোকারেন্সি এক্সচেঞ্জ ট্যাক্স ফাঁকি দিচ্ছে, এমন অভিযোগের ভিত্তিতে নিষিদ্ধের পরিকল্পনা করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে দেশটির সরকার।

দেশটির বিচার বিষয়ক মন্ত্রী পার্ক সাং-কি জানান, অভ্যন্তরীণ বিটকয়েন এক্সচেঞ্জসমূহে লেনদেন নিষিদ্ধের জন্য এরই মধ্যে একটি আইন প্রণয়নের কাজ শুরু করেছে সরকার। ‘ভার্চুয়াল মুদ্রা নিয়ে সরকার বেশ উদ্বিগ্ন। বিভিন্ন এক্সচেঞ্জের মাধ্যমে ক্রিপ্টোকারেন্সি লেনদেন নিষিদ্ধ করতে কাজ করছে বিচার বিষয়ক মন্ত্রণালয়।’ এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন তিনি।

তবে মন্ত্রীর এই ঘোষণার পর দেশটির রাষ্ট্রপতির কার্যালয় থেকে জানানো হয়, বিষয়টি এখনও চূড়ান্ত করা হয়নি। তবে ক্রিপ্টোকারেন্সির বিষয়ে যেসব পদক্ষেপ নেওয়ার কথা ভাবছে সরকার তার মধ্যে এটিও রয়েছে।

আইনটির খসড়া তৈরির পর চূড়ান্তভাবে পাস হতে প্রায় এক বছরও লেগে যেতে পারে। দেশটির আইনসভা ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলির ২৯৭ সদস্যের বেশিরভাগের সম্মতি পেলেই কেবল আইনটি পাস হতে পারে।

ক্রিপ্টোকারেন্সি নিষিদ্ধ করা হতে পারে, এমন খবরে বিটকয়েনসহ অন্যান্য ক্রিপ্টোকারেন্সির মূল্যে নিম্নগতি দেখা গেছে। বিটকয়েনের দাম প্রায় দেড় হাজার ডলার বেড়ে ১৩ হাজারে নেমে এসেছে।

সাম্প্রতিক সময়ে বিটকয়েনের দামের ঊর্ধ্বগতির কারণে দেশটির মানুষের মাঝে ক্রিপ্টোকারেন্সিতে বিনিয়োগের পরিমাণ উল্লেখযোগ্য হারে বৃদ্ধি পেয়েছে। দেশটিতে বর্তমানে একাধিক বড় আকারের ক্রিপ্টোকারেন্সি এক্সচেঞ্জও রয়েছে।