উচ্চাঙ্গ সংগীত উৎসবের জন্য রাজধানীর আবাহনী মাঠ বরাদ্দ পেয়েছে বেঙ্গল ফাউন্ডেশন।

ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান আবুল খায়ের লিটু চ্যানেল আই অনলাইনকে জানিয়েছেন, তারা ২৬ থেকে ৩০ ডিসেম্বর ওই উৎসবের জন্য আবাহনী মাঠের বরাদ্দ পেয়েছেন, তাই এখন অন্যান্য প্রস্তুতি শুরু হয়ে যাবে।

এখন তাদের শুধু উৎসবের ভেন্যু পরিবর্তনের জন্য সরকারের সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয় থেকে একটি অনুমতিপত্র লাগবে। আগে উৎসব ভেন্যু হিসেবে আর্মি স্টেডিয়ামের অনুমতি নেওয়া ছিল, এখন সেখানে পরিবর্তন আসায় নতুন একটি অনুমতি লাগবে।

তবে, একে খুব জটিল কিছু মনে করছে না বেঙ্গল ফাউন্ডেশন। কারণ, মূল উৎসব আয়োজনে সরকার তাদের অনুমতি দিয়েই রেখেছে, সেখানে শুধু ভেন্যু পরিবর্তনে আনুষ্ঠানিক একটি অনুমতির প্রয়োজন।

এর আগে ২২ অক্টোবর সংবাদ সম্মেলনে ‘বেঙ্গল উচ্চাঙ্গসংগীত উৎসব’ বাতিলের ঘোষণা দিয়ে আবুল খায়ের লিটু সাংবাদিকদের বলেন, সরকারের হয়তো আরও অনেক বড় পরিকল্পনা আছে। আর সে কারণেই হয়তো এবার উনারা আমাদের আর্মি স্টেডিয়ামটি বরাদ্দ দিতে পারেননি। আর এই কারণেই সবকিছু গুছিয়ে আনার পরেও আমরা উৎসবটি বাতিল করতে বাধ্য হলাম।

তিনি আরও বলেন, আমরা যে সময় উচ্চাঙ্গসংগীতের উৎসবটি করবো সেসময় হয়তো এখানে সরকারের আরও বড় কোনো প্ল্যান আছে। উৎসবটি হচ্ছে না বলে সেজন্য আমি কষ্ট পাচ্ছি। এই কষ্টটা এমন কষ্ট যা শেয়ার করতে আমার খারাপ লাগবে না, হয়তো একটু বেশী ইমোশনাল হয়ে যাবো। এভাবেই বলছিলেন আবুল খায়ের। এরপর মঞ্চের ডায়াজে দাঁড়িয়েই কেঁদে ফেলেন তিনি। কয়েক মুহূর্ত চুপ থাকেন। এরপর আবার বলতে শুরু করেন উচ্চাঙ্গসংগীত উৎসবটির বাতিল হওয়া নিয়ে। এই উৎসবটির সঙ্গে তার যে ইমোশন জড়িত তা কোনো অংশে নিজের ছেলে হারানোর শোকের চেয়ে কম নয় বলেও জানিয়েছিলেন এই সংগঠক।

আর্মি স্টেডিয়ামে বেঙ্গল উচ্চাঙ্গসংগীত উৎসবের জন্য সমস্ত আয়োজন গুছিয়ে নিয়েছিলেন আয়োজকরা। নভেম্বরের শেষ সপ্তাহে আয়োজনটি ঘিরে বিদেশি শিল্পীদেরও দাওয়াত দেয়া সম্পূর্ণ হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু শেষ সময়ে এসে আর্মি স্টেডিয়ামে জায়গা না পাওয়ায় অনুষ্ঠানের ৬ষ্ঠ আসরটি বাতিল করা হয়েছিল।

ছবি: জাকির সবুজ